PDA

View Full Version : নিমচন্দ্র - নেপালে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের কুকীর্তি


auntu
July 18, 2011, 02:05 AM
[বাংলা]ঢাকা, জুলাই ১৮ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- নারী কেলেঙ্কারি, স্কলারশিপ দিতে ঘুষ, অন্য দেশের পতাকা নিয়ে গাড়িতে ভ্রমণের মতো ঘটনার জন্ম দিয়েও নেপালের রাষ্ট্রদূতের পদে বহাল রয়েছেন নিমচন্দ্র ভৌমিক।

নিমচন্দ্রের এ ধরনের ভূমিকা দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করলেও মন্ত্রণালয় এখন পর্যন্ত তাকে সরায়নি, যদিও তার বিরুদ্ধে ওঠা বিভিন্ন অভিযোগের তদন্ত হয়েছে।

গত মে মাসে দেওয়া তদন্ত প্রতিবেদন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম এর কাছে এসেছে। তাতে অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে বলেও দেখা যায়। কিন্তু দুই মাসেও কোনো ব্যবস্থা দেখা যায়নি।

নিমচন্দ্রের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগের বিষয়টি পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনিও স্বীকার করেছেন। তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নেবো।"

কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানতে চাওয়া হলে পররাষ্ট্রসচিব মোহাম্মদ মিজারুল কায়েস বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "আমরা জানি, আমাদের কী করতে হবে।"

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পদার্থ বিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক নিমচন্দ্র বর্তমান সরকার ক্ষমতায় যাওয়ার পর ২০০৯ সালে নেপালের রাষ্ট্রদূত পদে নিয়োগ পান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থক নীল দলের শিক্ষক হিসেবে তিনি পরিচিত ছিলেন। আওয়ামী লীগের গত সরকার আমলে টাঙ্গাইলের মওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদে নিয়োগ পেয়েছিলেন তিনি। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে ছাত্র বিক্ষোভের সময় তিন জন শিক্ষকের সঙ্গে নিমচন্দ্রও গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।

গাড়িতে ভারতের পতাকা তোলা

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিমচন্দ্র ভৌমিকের কূটনৈতিক হিসেবে অপেশাদার আচরণ দেশে নেপালে দেশের ভাবমূর্তি বেশ ক্ষুণœ করেছে।

কাঠমান্ডুতে ভারতের অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল জ্যাকবের সঙ্গে কয়েকটি বৈঠকে নিমচন্দ্র তার গাড়িতে ভারতের পতাকা তোলেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।

২০১০ সালের ১৭ মার্চ কাঠমান্ডুর ইয়াক অ্যান্ড ইয়েতি হোটেলে মুজিবনগর দিবসের অনুষ্ঠানে নিমচন্দ্রের নির্দেশে বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারত ও নেপালের জাতীয় সঙ্গীতও বাজানো হয়।

নারী কেলেঙ্কারি

নিমচন্দ্র ভৌমিকের অসংখ্য নারী কেলেঙ্কারির মধ্যে বলিউড তারকা মনীষা কৈরালার সঙ্গে দেখা করতে অকূটনীতিকসুলভ আচরণের কথাও তদন্ত প্রতিবেদনে এসেছে।

কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশি পাঁচ তরুণের একটি চিত্র প্রদর্শনী উদ্বোধন করেছিলেন নেপালের প্রভাবশালী কৈরালা পরিবারের সদস্য মনীষা। অনুষ্ঠান উদ্বোধনের পর সন্ধ্যায় মনীষা দেখা পেতে তার বাড়িতেও ধরনা দিয়েছিলেন নিমচন্দ্র।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তদন্ত করে জেনেছে, মনীষার বাড়িতে ঢুকতে আধা ঘণ্টা ধরে ফটকে দাঁড়িয়ে দেনদরবার চালিয়েছিলেন নিমচন্দ্র। তবে ফটক খোলেনি।

২০০৯ সালে নিয়োগ পাওয়ার পর কাঠমান্ডুর ভারতীয় দূতাবাসের মুখপাত্র অপূর্ব শ্রীবাস্তবকে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করেছিলেন বলেও তদন্তে বেরিয়ে এসেছে। এছাড়া বাংলাদেশি দূতাবাসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে নেপালের বেশ কয়েকজন নারীও রাষ্ট্রদূতের কাছে হয়রানির স্বীকার হয়েছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয় বেশ কয়েকজন নারীকে দূতাবাসেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় দিচ্ছেন নিমচন্দ্র। রাষ্ট্রদূতের আচরণের মধ্য দিয়ে আত্মমর্যাদা বোধ বিসর্জন ও দায়িত্বনিষ্ঠার অভাব প্রকাশ পেয়েছে।

নিমচন্দ্রের বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারির সরাসরি অভিযোগ গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তোলেন কাঠমান্ডু দূতাবাসের সাবেক ফার্স্ট সেক্রেটারি নাসরিন জাহান লিপি। ওই মাসেরই মধ্যভাগে চার বাংলাদেশি তরুণীকে জড়িয়ে দূতাবাসে নিমচন্দ্রের কেলেঙ্কারির তিনি প্রত্যক্ষ সাক্ষী বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

বৃত্তির জন্য ঘুষ

২০০৯ ও ২০১০ সালে নেপালি শিক্ষার্থীদের দেওয়া বাংলাদেশি বৃত্তির ক্ষেত্রে 'নয়-ছয়' হয়েছে অভিযোগ উঠেছে। ঘুষের বিনিময়ে শিক্ষাভিসা দেওয়ার নজিরও খুঁজে পেয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত দল।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃত্তির ক্ষেত্রে নেপালের গুরুত্বপূর্ণ অনেক ব্যক্তি এমনকি সে দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুপারিশও উপেক্ষা করেছেন নিমচন্দ্র।

নেপালের যে সব শিক্ষার্থী সরাসরি শিক্ষা ভিসার আবেদন করে, নানা টালবাহানা করে তাদের আটকে পরে 'জটিলতার' অবসানের জন্য বিভিন্ন পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা তাদের ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছিলো, যে সব প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে দূতাবাস তথা নিমচন্দ্রের সম্পর্ক ছিলো বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তদন্ত দল জানতে পেরেছে, অন্তত ছয়টি সরকারি বৃত্তি নিয়ে 'ঘুষবাণিজ্য' করেছেন নিমচন্দ্র, যার প্রতিটি ৩৫ হাজার থেকে ৪০ হাজার ডলারের।

শিক্ষাবৃত্তির এ ধরনের অপব্যবহারের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি হিমালয়ের পাদদেশের দেশটিতে বেশ নাজুক হয়েছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

নেপালের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানো

নেপালের অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক বিষয়ে বিশেষ করে মাওবাদীদের বিষয়ে সরাসরি বক্তব্য রেখে কূটনৈতিক শিষ্টাচার ভঙ্গ করার অভিযোগও উঠেছে নিমচন্দ্রের বিরুদ্ধে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন প্রকাশ্য সভায়ও নেপালের এখনকার বিরোধী দল মাওবাদীদের সমালোচনা করে বক্তব্য দিয়েছেন রাষ্ট্রদূত। মাওবাদীদের কীভাবে ঠেকাতে হবে সে পরামর্শও তাকে দিতে দেখা গেছে।

নেপালের সরকারি মহলে নিমচন্দ্র গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছেন বলে তদন্ত দল প্রমাণ পেয়েছে। তার ব্যবহার ও অকূটনৈতিকসুলভ আচরণই এর জন্য দায়ী। কাঠমান্ডুর কূটনৈতিক মহলেও তার অবস্থান খুব নাজুক।

নিমচন্দ্রকে সরিয়ে একজন পেশাদার কূটনীতিককে রাষ্ট্রদূতের পদে নিয়োগ দিতে নেপালের পররাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশের সচিবকে অনুরোধের কথাও প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে। [/বাংলা]

[বাংলা]লিংকঃ[/বাংলা] (http://www.bdnews24.com/bangla/details.php?cid=2&id=165298&hb=top)

Naimul_Hd
July 18, 2011, 02:25 AM
shob lompot gulai Foreign service e kaj kore naki ?

bujhee kom
July 18, 2011, 02:28 AM
Scumbag! I disgusted by these shame for the country representing, bridging diplomatic ties with foreign nations...and shame on the foreign ministery for not removing him, bringing him back home and punishing yet!

nakedzero
July 18, 2011, 03:33 AM
[বাংলা]বাংলাদেশ এর জন্য এটা বেশ উদ্বেগ-উত্কন্ঠার ব্যাপার যে আমাদের 'শিক্ষকদের' (শিক্ষক!) হচ্ছে টা কি ! কিছুদিন আগে দেখলাম পরিমল এর কীর্তি, এখন আবার নিমচন্দ্র !![/বাংলা]

WarWolf
July 18, 2011, 03:57 AM
কাঠমান্ডুতে ভারতের অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল জ্যাকবের সঙ্গে কয়েকটি বৈঠকে নিমচন্দ্র তার গাড়িতে ভারতের পতাকা তোলেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।[বাংলা]নব্য রাজাকারে দেশ ভরে যাচ্ছে। বাংলাদেশ একটা চরম দুর্ভাগা দেশ। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি সমর্থক রাজাকারদের কীর্তিকথা সবাই জানে। বাংলাদেশ হবার পরে দেশে শুরু হলো দালালির প্রতিযোগিতা। পাকিস্তানি, ভারতীয়, আমেরিকান, রাশিয়ান, চীনা...আরও কত নামজানা না জানা দেশের দালালে দেশ ভরে গেছে। দুঃখের ব্যাপার হলো দেশের হয়ে দালালি করার মত লোক দেখতে পাই না।[/বাংলা]

WarWolf
July 18, 2011, 04:00 AM
shob lompot gulai foreign service e kaj kore naki ?

[বাংলা] নাহ। দলীয় আনুগত্যের পুরষ্কার হিসাবে এদের ফরেন সার্ভিসে পাঠানো হয়।[/বাংলা]

Rabz
July 18, 2011, 04:41 AM
Chagol diye hal chash korle ei hoy.
Dui raam chagi diye ki r unnoto jater foshol folano shombhob ??
Ei bachcha chagol gula hochche tar e foshol.

simon
July 18, 2011, 05:28 AM
Chagol diye hal chash korle ei hoy.
Dui raam chagi diye ki r unnoto jater foshol folano shombhob ??
Ei bachcha chagol gula hochche tar e foshol.

:up:

Zeeshan
July 18, 2011, 06:37 AM
In his defense...Manisha K IS smokinly hot.

akabir77
July 18, 2011, 08:12 AM
ato india r flag uranor icha to lathi dea india shagorey tey fala dila bhalo...

roman
July 18, 2011, 08:47 AM
Kedo na desh. Tomar bukei to jonmo niyesilo Salam, Barkat, Jahangir, Motiur Rahman, Noor Hossain der moto bir. Ei shob kit potongo gulo dhongsho hobe khub taratari. Tumi dekhe nio...

PoorFan
July 18, 2011, 09:25 AM
[বাংলা]ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পদার্থ বিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক নিমচন্দ্র বর্তমান সরকার ক্ষমতায় যাওয়ার পর ২০০৯ সালে নেপালের রাষ্ট্রদূত পদে নিয়োগ পান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থক নীল দলের শিক্ষক হিসেবে তিনি পরিচিত ছিলেন। আওয়ামী লীগের গত সরকার আমলে টাঙ্গাইলের মওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদে নিয়োগ পেয়েছিলেন তিনি। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে ছাত্র বিক্ষোভের সময় তিন জন শিক্ষকের সঙ্গে নিমচন্দ্রও গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।
[/বাংলা]
This is happen when every institution get politicize, wrong people bound to get in, shameless.

nakedzero
July 18, 2011, 01:03 PM
No, it's not yet official that Nepal wants Bangladeshi ambassador in Kathmandu recalled for his "gross departure from diplomatic norms and inefficient handling of diplomatic affairs".

In an 'unofficial' communication, the Nepalese foreign ministry has requested the recall of Neem Chandra Bhowmik. But the government back home remains unsure about initiating an action against the man.

Apart from 'seriously affecting' the bilateral relationship between the countries, Bhowmik is also tarnishing the image of Bangladesh in Kathmandu for several reasons, including women-related scandals, according to a report of the foreign ministry obtained by bdnews24.com.

Interference in Nepal's internal politics and anomalies in issuing visa to Nepalese students for studying in Bangladesh are also among the irregularities and corruption detected by Dhaka following allegations against him.

Bhowmik, a teacher of the Department of Applied Physics, Electronics and Communication Engineering of Dhaka University (DU), who was appointed Bangladesh ambassador to Nepal in 2009, however, refutes the allegation as 'a conspiracy against him'.

GENERAL JACOB ISSUE

The political cost of Bhowmik's misdemeanour, gross violation of diplomatic norms, practices, nuances and disgraceful acts is that it projects a poor image of Bangladesh in Nepal, the report says.

"He escorted former Indian army official General Jacob to a few meetings in Katmandu in his car carrying Indian flag," it reads.

At the Mujibnagar Dibash programme at hotel Yak & Yeti on Mar 17, 2010, the ambassador asked Nepalese army band to play national anthems of Bangladesh, Nepal and India, the report says.

MANISHA KOIRALA AFFAIR

Without any announcement, the report says, Bhowmik went to the house of film actress Monisha Koirala as she inaugurated a painting exhibition of five Bangladeshi artists in Nepal.

"He also waited outside the gate of Monisha's house, but none opened the gate despite his frantic efforts for about half an hour," it adds.

"There are confirmed reports that since his joining the mission in late 2009, Bhowmik had approached and disturbed Mrs Apoorva Srivastava, counsellor and spokesperson of Indian embassy in Kathmandu."

Allegations are also there that he approached a few Nepalese girls and ladies, who had participated in some events of the mission.

"These cases demonstrate appalling lack of integrity and self-respect," says the report, adding, "It is also reported that unknown local women often turn up at the mission premises to meet the ambassador and spend considerable time."

Nasreen Jahan Lipi, former first secretary in the Bangladesh mission in Kathmandu, met foreign minister Dipu Moni in Dhaka on Dec 24 last year and informed her about the incidents involving Bhoumik and four Bangladeshi girls in mid-December last year.

"She is a live witness/evidence of all the above that have taken place in Kathmandu and the mission," the foreign ministry report reads.

INTERFERENCE IN NEPAL POLITICS

In a number of public forums and in private meetings, the Bangladesh ambassador has openly castigated Nepali Maoists and even advised people about what was required to be done vis-à-vis the extreme leftists.

In a "gross departure" from diplomatic norms, Bhowmik has been found "interfering in Nepal's internal politics", says the report.

LACK OF MANNERS

Bhoumik's credibility in the Nepalese foreign ministry has dropped drastically as he seriously lacks diplomatic etiquettes and has very often "grossly departed from regular protocol", it mentions.

During official calls with Nepali ministers, he does not bother taking non-diplomatic staff with him.

"Even the Nepalese foreign secretary has made an informal request to our foreign secretary to replace him with a career diplomat in Kathmandu," the report reads.

The report also says that Bhowmik mostly remains isolated from the diplomatic community in Nepal.

SCHOLARSHIP SCANDAL

It has been alleged in the report that Bhowmik took bribe from a number of Nepalese students, who had been selected for scholarships announced by the Bangladesh government in 2009 and 2010.

"Scholarship-related requests from Nepalese VIPs, that include even a formal one from the Nepalese foreign ministry, were disregarded."

An allegation that Bhowmik 'traded' six government scholarships, each for $35,000-$40,000, through some local educational consultancies close to the Bangladesh mission also finds a mention in the report.

"This has been in disregard to the original purpose of the scholarships and caused damage to the image of Bangladesh in Nepal," the report says.

ROLE OF THE MINISTRY

When contacted, foreign minister Dipu Moni said, "Some charges were levelled against him and we are investigating it...we will act according to the report."

Asked about the actions the ministry is going to take against Bhowmik, foreign secretary Mohammed Mijarul Quayes said, "You will know about our action at the right time."

BHOWMIK'S REACTION

Reacting to the allegations, Bhowmik told bdnews24.com, "Some people are trying to malign my image as they don't do any work, but I do," he said.

"I maintain a good relation with the (Nepalese) prime minister and other high officials," he said, adding, "Bilateral ties in education, culture and other areas have expanded since I took over the charge of Bangladesh mission here."

Frequency of per week flight operation to and from Nepal has increased to 18 from seven to eight a year back, he added.


[B]SOURCE (http://www.bdnews24.com/details.php?cid=2&id=201151&hb=1)

bujhee kom
July 18, 2011, 01:51 PM
Neem Chondro....Ei betakey DU-te dhuktey dien naa bhais..Lomphot beta..disgrace!

bujhee kom
July 18, 2011, 09:16 PM
Stupid chagol goes out and talks against the Maoist movement of Nepal and runs his stupid mouth and tells Nepal what to do!

banani
July 18, 2011, 09:54 PM
What a shame? Punish him immediately to save our national self-respect.

al-Sagar
July 18, 2011, 10:11 PM
nim chondro was wrongly accused and tortured by the army during the caretaker govt. later to compensate for that he was honored with the post of BD ambassador in Nepal\

AFAIK, he was an honest person before but after the incident during the caretaker govt he has been changed totally.

Night_wolf
July 18, 2011, 10:44 PM
lol!..monisa koirala!...r maye pailona!

Zeeshan
July 18, 2011, 10:56 PM
lol!..monisa koirala!...r maye pailona!

You seem more of Munni Saha type of person, so obviously....

Jadukor
July 18, 2011, 11:33 PM
buh our Ambassadors are becoming rockstars...

Night_wolf
July 19, 2011, 06:05 AM
You seem more of Munni Saha type of person, so obviously....

i am more of a tera patrick type of person!..if u know what i mean/:)

shaad
July 19, 2011, 05:25 PM
nim chondro was wrongly accused and tortured by the army during the caretaker govt. later to compensate for that he was honored with the post of BD ambassador in Nepal\

AFAIK, he was an honest person before but after the incident during the caretaker govt he has been changed totally.

Two points, offstump. First, source? It's not that I doubt your veracity, but knowing what your sources were would give us some sense of how much faith to put on them.

Second, do you know what courses he completed at the Bangladesh Foreign Service Academy and when he joined the Ministry of Foreign Affairs? I'd like to get a sense of how seasoned he was for such a posting.

If he was wrongly accused and maltreated by the CG, that's lamentable, but offering diplomatic posts to compensate for that (instead of say, monetary compensation, or a trial of his abusers) is ridiculous. As is offering such a post to someone without either a sufficiently thorough background check or the appropriate training.

al-Sagar
July 19, 2011, 07:17 PM
Two points, offstump. First, source? It's not that I doubt your veracity, but knowing what your sources were would give us some sense of how much faith to put on them.

Second, do you know what courses he completed at the Bangladesh Foreign Service Academy and when he joined the Ministry of Foreign Affairs? I'd like to get a sense of how seasoned he was for such a posting.

If he was wrongly accused and maltreated by the CG, that's lamentable, but offering diplomatic posts to compensate for that (instead of say, monetary compensation, or a trial of his abusers) is ridiculous. As is offering such a post to someone without either a sufficiently thorough background check or the appropriate training.

about the first point, my source is an associate professor DHaka Universoty who was an colleague of Mr. Nimchandra Bhoumik.

second point, i have no idea about his courses completed. all i know after the controversial incident he was first suspended and then when AL govt came they posted him at NEPAL.

anyway i will try to get some more news of what actually happened during that incident and post it later

ammark
July 20, 2011, 07:43 AM
Second, do you know what courses he completed at the Bangladesh Foreign Service Academy and when he joined the Ministry of Foreign Affairs? I'd like to get a sense of how seasoned he was for such a posting.

Shaad bhai,

Political appointees (and others) on deputation to the MoFA don't go through the FSA courses. At best they have an orientation of sorts, but nothing of the likes of the career diplomats. I worked at MoFA in the Protocol Wing for the SAARC summit back in 2005 (just before the tsunami). The Chief of Protocol was an Army Brigadier then. He was one pompous bastard. He broke all protocol by riding around in a jeep with star and flagstand to represent his rank.

The Foreign Service has all sorts of fruitcakes working there. You probably remember the Washington D.C Embassy diplomat's husband who raked up a huge bill at a NYC strip club. And there's also the other lady who was high commissioner to South Africa - she had her deceased dog's body flown in for a burial.

shaad
July 20, 2011, 10:15 AM
offstump and ammark,

Thanks for the info. Explains a lot. I've seen MoFA make some very shrewd and strategic decisions (e.g. agriculture in Africa) and then there are these embarrassments.

Time to get Chinaman to start up a BC political party to challenge BNP and AL. Platform: Professionalism in all aspects of BD, but primarily in cricket. :)

Naimul_Hd
July 27, 2011, 02:19 AM
Lets see how much is your tolerance power. Listen to our Ambassador in Oman addressing other foreign delegates and bangladeshi people.

<object style="height: 390px; width: 640px"><param name="movie" value="http://www.youtube.com/v/ji0079JtYV0?version=3"><param name="allowFullScreen" value="true"><param name="allowScriptAccess" value="always"><embed src="http://www.youtube.com/v/ji0079JtYV0?version=3" type="application/x-shockwave-flash" allowfullscreen="true" allowScriptAccess="always" width="640" height="390"></object>

akabir77
July 27, 2011, 10:04 AM
I will tell you secrete-ly why there is no clap? dil mea kuch KALO hay... OMG

nakedzero
July 27, 2011, 10:10 AM
I will tell you secrete-ly why there is no clap? dil mea kuch KALO hay... OMG

NO TALK NO TALK :timeout:

Banglaguy
July 27, 2011, 10:17 AM
I feel sorry for the ambassador...

nakedzero
November 17, 2011, 11:09 AM
[বাংলা]নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নিমচন্দ্র ভৌমিকের ‘অকূটনীতিক’ সুলভ আচরণ ও বিভিন্ন অভিযোগ থেকে ‘সম্মানের সাথে’ ক্ষমা পেয়ে যাচ্ছেন।

নিমচন্দ্র ভৌমিকের বিরুদ্ধে সরকারের গঠন করা তদন্ত কমিটি গত ১৪ নভেম্বর পররাষ্ট্রসচিবের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়।

সংশ্লিষ্ট একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র বৃহস্পতিবার বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের গঠন করা তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনেও ‘গুরুতর’ কিছু পাওয়া যায়নি এবং সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে ‘ওভারলুক’ (দেখেও না দেখার ভান) করে তাকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং বাংলাদেশে হিন্দু ধর্মীয় সংগঠনের একজন প্রসিদ্ধ নেতা হিসেবে তাকে ‘বেনিফিট অব দ্যা ডাউট’ দেওয়া হচ্ছে।

নিমচন্দ্রকে ক্ষমা করে দেওয়ার কারণ হিসেবে সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে বলা হয়েছে, ‘সত্তরের দশক থেকে তিনি পূজা পরিষদ নামে একটি সংগঠনকে জাতীয় সংগঠনে পরিণত করেছেন। বাঙালি ও বাংলাদেশের প্রতি তার অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তাকে রাষ্ট্রদূত করা হয়। এখন উদ্ভুত কারণে তাকে আর অসম্মান করা যাবে না।’

‘চুক্তিভিত্তিক নিযুক্ত এ রাষ্ট্রদূতের চুক্তির মেয়াদ শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করার সিদ্ধান্তের মধ্যদিয়ে সরকার তাকে রেহাই দিচ্ছে বলেই সূত্রের মন্তব্য।

বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের গঠন করা তদন্ত কমিটি গত ৩১ অক্টোবর নেপালের কাঠমান্ডু যায়। ৪ নভেম্বর তারা দেশে ফেরেন।

চীনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুন্সী ফায়েজ আহমেদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্তদলে ছিলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (শৃঙ্খলা ও আইন) রইসুল আলম মন্ডল ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক সুব্রত রায় মৈত্রী।

ঈদের ছুটির আগেই তদন্ত কমিটি একসঙ্গে বসে প্রতিবেদন তৈরি করে। এরপর ১৪ নভেম্বর তারা প্রতিবেদনটি পররাষ্ট্রসচিব মোহাম্মদ মিজারুল কায়েসের কাছে জমা দেয়।

সূত্র জানায়, তদন্ত প্রতিবেদনে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর গত মে মাসে করা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ একটি প্রতিবেদনের যুক্তি খ-ন করা হয়।

‘ভারতীয় সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল জ্যাকবকে ভারতীয় পতাকা উড়িয়ে নিয়ে ভ্রমণ’ বিষয়ে তদন্ত কমিটি যথাযথ কোনও প্রমাণ পায়নি বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। এই অভিযোগটিকেই সবচেয়ে গুরুতর বলে তদন্তের আগে অভিহিত করেছিল সংশ্লিষ্টরা।

অন্য দেশের পতাকা নিয়ে গাড়িতে ভ্রমণ ছাড়াও নারী কেলেঙ্কারি, ভিসা দিতে হয়রানি, শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপ দিতে ঘুষ, এমনকি নেপালের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে নাক গলানোর মতো অভিযোগ উঠে নিমচন্দ্রের বিরুদ্ধে।

তিনসদস্যের তদন্ত কমিটি এসব অভিযোগের ব্যাপারেও সন্দেহাতীত প্রমাণ পায়নি বলেই দাবি সূত্রের।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট অণুবিভাগের কর্মকর্তারা জানান, ২০০৯ সালে নিয়োগের পর থেকে নানা অভিযোগ আসে নেপাল থেকে। এ নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়। এরপর মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন উইং বিষয়টি তদন্ত করে। গত মে মাসে এ সংক্রান্ত রিপোর্ট জমা পড়ে।

রিপোর্টে তাকে দেশে ফেরত পাঠানোর সুপারিশ করা হয়। কিন্তু দেশের অত্যন্ত স্পর্শকাতর একটি সাম্প্রদায়িক সংগঠনের নেতৃত্ব এবং একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির নেতাদের তদবিরে তা চাপা দেয়া হয়।

তদন্ত রিপোর্ট আমলে নিলেও পররাষ্টমন্ত্রী, সচিব কিংবা দায়িত্বপ্রাপ্ত কেউই তা স্বীকারই করতে রাজি হননি প্রায় দু’মাস।

জুন ও জুলাই মাসে বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশের পর ১৯ জুলাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘নিমচন্দ্রের বিরুদ্ধে পাওয়া অভিযোগের তদন্ত হবে।’

তবে এরপরও কেটে যায় প্রায় ৫ মাস। এরপর গত অক্টোবর মাসে গঠন করা উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি।[/বাংলা]


SOURCE (http://www.banglanews24.com/news.php?nssl=69083)

deshimon
November 17, 2011, 04:33 PM
তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিবে না বলেই কি সরকার এত গড়িমিসি করে ৫ মাস কাটিয়ে দিল? তার এত অবদানের কথা চিন্তা করে যদি সরকার এভাবে মাফ করে দেয়, তাহলে তার এত কুকীর্তির জন্য শাস্তি পাওয়াটাওতো জরুরী ছিল।

দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করলে তার আর যে কোন অবদানই তুচ্ছ হয়ে যাওয়ার কথা।

bujhee kom
November 17, 2011, 04:41 PM
Just shows how pathetic our political parties are, how we suffocate ourselves everyday more and more! How our government operates and thinks, it is the naked truth! I am so embarrassed!

zinatf
November 18, 2011, 01:12 AM
Bangladesh will not develop ever at all if our "politics" (Don't know what to call this...) does not include well-educated people but with a mind-set of improving the country...not their pockets...