PDA

View Full Version : আনন্দবাজারের সঙ্গে সাকিব-আল-হাসান


reverse_swing
April 2, 2012, 05:23 PM
[বাংলা]
এশিয়া কাপ হারানোর যন্ত্রণা ভুলতে চাই নাইটদের আইপিএল জিতিয়ে
গালে হাল্কা দাড়ি। চোখমুখে অদ্ভুত একটা প্রশান্তি লেগে। পঁচিশ বছরের শান্তশিষ্ট বাঙালি তরুণকে দেখে কে বলবে,
ইনিই বর্তমানে দুনিয়ার সেরা অলরাউন্ডার! এশিয়া কাপ থেকে আইপিএল, আইসিসি-র সম্মান— সব কিছু নিয়েই
সোমবার সকালে টিম হোটেলে আনন্দবাজারের সঙ্গে কথা বললেন নাইটদের অন্যতম যোদ্ধা সাকিব-আল-হাসান।
রাজর্ষি গঙ্গোপাধ্যায় • কলকাতা

প্রশ্ন: আপনাকে বলা হচ্ছে ডেভিডদের গোলিয়াথ। বাংলাদেশ টেস্ট কালেভদ্রে খেলে। ক্রিকেটবিশ্বে বাকিদের কাছে তেমন পাত্তাও পায় না। কিন্তু আইসিসিকে কি না সেখান থেকেই বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার বেছে নিতে হচ্ছে! ব্যাপারটা ভাবলে কী রকম অনূভূতি হয়?
সাকিব: আইসিসি যখনই কোনও স্বীকৃতি দেয় ভাল তো লাগে নিশ্চয়ই। বিশেষ করে বাংলাদেশ থেকে আমিই প্রথম এই মাইলফলক ছুঁলাম। আলাদা ভাললাগা একটা আছে। কিন্তু পাশাপাশি এটাও বলব যে, আরও বেশি করে ম্যাচ পেলে ভাল হয়। আসলে আমরা যত বেশি ম্যাচ খেলব, তত বেশি শিখব। যত বেশি টেস্ট খেলব, তত আমাদের দেশের ক্রিকেটের উন্নতি হবে।

প্রশ্ন: এশিয়া কাপ নতুন বাংলাদেশের জন্ম দিয়েছে বলা হচ্ছে। আপনারও কি মনে হয় যে, এশিয়া কাপের হাত ধরেই বাংলাদেশ ক্রিকেটে রেনেসাঁ ঢুকে পড়ল?
সাকিব: আমি তো বলব আজ নয়, বদলটা শুরু হয়েছে বেশ কিছু দিন আগে। আমরা দেশের মাঠে নিউজিল্যান্ড উড়িয়ে দিয়েছি। কিন্তু ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কার মহড়া না নিলে মর্যাদাটা সে ভাবে আসে না। টিমটা পাল্টাচ্ছিল অনেক দিন ধরে। এখন আরও বেশি পাকাপোক্ত হয়েছে। বিদেশের ম্যাচের কথা বলব না। উপমহাদেশের বাইরে আমাদের বিপন্নতা এখনও কাটেনি। কিন্তু দেশের মাঠে কী ভাবে যুঝতে হয়, আমরা শিখে গিয়েছি। দু’বছর আগে পর্যন্ত এই ব্যাপারটা ছিল না। আরও একটা কারণ, টিমের ক্রিকেটাররা অনেক দিন ধরে একসঙ্গে খেলছে। কেউ কেউ আশি-নব্বইটা ম্যাচ খেলে ফেলেছে। দেশে আমরা যে যথেষ্ট শক্তিশালী টিম, আশা করি এশিয়া কাপের পর বাকি বিশ্ব বুঝেছে।

প্রশ্ন: কিন্তু এত করেও তো এশিয়া কাপটা জেতা হল না। ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারতে হল দু’রানে।
সাকিব: তো? আমরা টুর্নামেন্টে ভারত, শ্রীলঙ্কার মতো টিমকে হারিয়েছি। পাকিস্তানকেও প্রায় হারিয়ে দিয়েছিলাম। দেখুন, এই টুর্নামেন্টটা আমরা জেতার সব দিক থেকে যোগ্য ছিলাম। একটাই কথা বলব। ইনসাল্লাহ্, বাংলাদেশের প্রত্যাবর্তনটা যেন এখান থেকেই হয়!

প্রশ্ন: সেই রাতটার কথা ভেবে আফশোস হয় না? মনে হয় না, আপনি আরও কিছুক্ষণ থাকলে বাংলাদেশ ইতিহাসে ঢুকে পড়ত?
সাকিব: আফশোস তো হয়ই। সে দিন আমি ভীষণ ভাবে চাইছিলাম আরও পাঁচ-ছ’টা ওভার টিকে যেতে। মনে হচ্ছিল, আরও কিছু রান তুলে দিতে পারলে টিমের কাজটা সহজ হয়ে যাবে। কিন্তু হল না। যাই হোক, সামনে তাকানো ভাল।

প্রশ্ন: আপাতত সামনে তাকানো মানে, আইপিএল। কেকেআর। যাদের এ বারের স্লোগান হচ্ছে, ‘নিউ ডন, নিউ নাইটস’। অর্থাৎ, নতুন নাইট, নতুন ভোরের স্বপ্ন। কিন্তু গত বার এই টিমটা সেমিফাইনালে যেতে পারেনি। তাদের পক্ষে কতটা নতুন ভোরের স্বপ্ন দেখা সম্ভব?
সাকিব: সম্ভব। ইউসুফ ভাই দুর্দান্ত ফর্মে। গম্ভীর, কালিস কে ভাল খেলছে না? গত বার গুরুত্বপূর্ণ কিছু ম্যাচে ভুলভ্রান্তি আমাদের ডুবিয়েছিল। নইলে আমরা সেমিফাইনাল খেলতাম। এ বার সেই ভুলগুলো করলে চলবে না। শেষ চারে চলে গেলে ফাইনালেও যাব। আর ফাইনাল মানে তো যা কিছু হতে পারে।

প্রশ্ন: সাকিব-আল-হাসান সম্পর্কে বলা হয়, তাঁর দু’টো সত্তা। এক দিকে, দেশ-বিদেশের তরুণী-ব্রিগেড তাঁকে মাঠে দেখলেই গর্জন শুরু করে। এতটাই তাঁর ভক্তের সংখ্যা। অন্য দিকে, এই মানুষটার সঙ্গেই আবার দেশজ মিডিয়ার ঝামেলার অভিযোগ আসে। টিমের জুনিয়ররা নাকি ভয় পায় তাঁর সঙ্গে কথা বলতে...।
সাকিব: (একটু তেতে) জানি না এটা কী ভেবে বলা হচ্ছে। আমার কোনও মিডিয়ার সঙ্গেই ঝামেলা নেই। আর জুনিয়র ক্রিকেটারদের কথা বলছেন? তা হলে জেনে রাখুন যে ওরা আমার সঙ্গে বেশি স্বচ্ছন্দ।

প্রশ্ন: বিশ্বকাপে আপনি অধিনায়ক ছিলেন। কিন্তু তার পর অধিনায়কত্ব গেল। এবং শেষে এশিয়া কাপে আপনি ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট। অধিনায়কত্ব যাওয়ার জ্বালাটা কি কাজ করেছে কোথাও?
সাকিব: কেন? অধিনায়ক যখন ছিলাম তখন কি পারফর্ম করতাম না? যত সময় যায়, প্রত্যেক ক্রিকেটারের ধাপে ধাপে উন্নতি ঘটে। আমারও সেটাই হচ্ছে। আর বর্তমান অধিনায়ক মুশফিকুরের সঙ্গে আমার সম্পর্ক যথেষ্ট ভাল। ক্রিকেট ছেড়ে দিন। আমরা পড়াশোনাও করেছি একসঙ্গে। এর মধ্যে অন্য কিছু খুঁজলে ভুল হবে।

প্রশ্ন: বিশ্বকাপ প্রসঙ্গে বলা যাক, ভারতের বিশ্বজয়ের এক বছর হল। যে জয়যাত্রার শুরুটা হয়েছিল আপনাদের বিরুদ্ধে। কিন্তু তার পর থেকে ধোনিদের টিমের হাল অত্যন্ত খারাপ। এটা কেন হচ্ছে বলে মনে হয়?
সাকিব: কার হয়নি এ রকম? অস্ট্রেলিয়ার হয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়েছে। সব টিমের, সব ক্রিকেটারেরই এমন খারাপ সময় যায়। এত ‘গেল গেল’ আওয়াজ তোলার কিছু হয়নি।

প্রশ্ন: আইপিএলে ফেরা যাক। এশিয়া কাপটা তুলতে পারেননি। আপনার কি মনে হয়, সেই যন্ত্রণাটা মুছবে নাইটদের আইপিএলটা জেতাতে পারলে?
সাকিব: অবশ্যই। চ্যাম্পিয়ন টিমের অংশীদার কে না হতে চায়? আইপিএল যদি জিততে পারি, এশিয়া কাপ হারানোর যন্ত্রণাটা হয়তো ভুলতে পারব। আর আমাদের টিমের যা শক্তি, তাতে সেটা সম্ভব।

প্রশ্ন: আগামী ৫ মে, ইডেনে কেকেআর বনাম পুণে ওয়ারিয়র্স। এক দিকে কেকেআরে আপনি। অন্য দিকে, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং তামিম ইকবাল। বাংলাদেশ কোন দিকে থাকবে সে দিন?
সাকিব: মনে তো হয়, কেকেআরের দিকে। যদিও বাংলাদেশ চাইবে আমি, তামিম দু’জনেই সফল হই। কলকাতায় খেলা মানে, কলকাতার সমর্থন হয়তো দাদার দিকে যাবে কিছুটা। যাক গে, সে সবের অনেক দেরি আছে।
[/বাংলা]

Source: আনন্দবাজার (http://www.anandabazar.com/3khela3.html)

BANFAN
April 5, 2012, 08:44 AM
Nice interview....

mufi_02
April 5, 2012, 08:49 AM
Shakib speaking in Calcutta accent.

PoorFan
April 5, 2012, 09:12 AM
Some of those answers does not sounds Shakib's word, perhaps some expression just made up by the reporter [as it seems to me].

BANFAN
April 5, 2012, 09:43 AM
Some of those answers does not sounds Shakib's word, perhaps some expression just made up by the reporter [as it seems to me].

They surely did... Shakib really can't speak in that tone and language...

simon
April 5, 2012, 10:01 AM
eder shamney Kaaler kontho/ BD news ra dudh bhat. :smh:

Habib
April 5, 2012, 10:19 AM
They kolkatafied Shakib's accent big time and added masala into it. The result is as khyat as it can get.

kalpurush
April 5, 2012, 02:17 PM
Nice one. Thank r_s bhai for sharing :)

TigerEz
April 5, 2012, 02:54 PM
they translated it to kolkatain

Purbasha T
April 5, 2012, 04:08 PM
Accent? Lol! How are you guys getting to listen to how he said it? :-p

TigerEz
April 5, 2012, 07:13 PM
Accent? Lol! How are you guys getting to listen to how he said it? :-p

eita kemon proshno??? amra jei maper fan...jekono kichu bujhte pari. After all we are called "Tiger Fans"

zsayeed
April 5, 2012, 07:47 PM
Bhai ei article-er ekta copy Shakib-er official thread e diyen. This thread will be lost after a while. Thanks.

oronnya
April 5, 2012, 09:52 PM
eder shamney Kaaler kontho/ BD news ra dudh bhat. :smh:

khati kotha.. ekhane Shakib er replygulo emonbhabe likhse je pore mone hobe Shakib khub naak uchu type manush, which is so not true..

playmaker
April 6, 2012, 01:14 AM
shakib had a vision to take his team to the top and this idiotic Gay-Gay-R doesnt play him

reverse_swing
April 6, 2012, 06:09 PM
সাকিবকে খেলানোর দাবি উঠে পড়ল
[বাংলা]
নিজস্ব সংবাদদাতা • কলকাতা
এক দিকে, কুৎসিত ব্যাটিংয়ের ময়নাতদন্ত। অন্য দিকে, সাকিব-আল-হাসানকে খেলানোর দাবি উঠে যাওয়া। ঘরের মাঠে দিল্লির বিরুদ্ধে বিপর্যয়ের চব্বিশ ঘণ্টা পর নাইট শিবিরের ছবিটা এ রকমই।
ইডেনের উইকেট নিয়ে কোনও অভিযোগের জায়গা নেই। বরং টিমের ক্রিকেটারদের মনে হচ্ছে, উইকেট টি-টোয়েন্টির জন্য যে আদর্শ ছিল সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন ইরফান পাঠান। অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর সোজাসাপ্টা বলে দিয়েছেন, “কুড়ি রানের মধ্যে যদি তিন উইকেট চলে যায়, আর কী পড়ে থাকে ম্যাচে?” বৃষ্টিভেজা ইডেনের ফায়দা দিল্লি ডেয়ারডেভিলস তুলে নিয়ে চলে গেল কি না, এ জাতীয় প্রশ্নেও পাত্তা দেননি নাইট নেতা। বরং বলেছেন, “আমি মনে করি না। ম্যাচটা ক্লোজ ছিল শেষ পর্যন্ত। এ সব না বলে আমাদের উচিত, ম্যাচ থেকে ইতিবাচক দিকগুলো নেওয়া। যেমন লক্ষ্মীর দুর্ধর্ষ ব্যাটিং। দেবব্রত দাসের ফর্ম।”
ঘটনা হচ্ছে, নিজেদের শুধরে নেওয়ার জন্য খুব বেশি সময় পাচ্ছে না গম্ভীর এবং তাঁর দলবল। আগামী রবিবার জয়পুরে নেমে পড়তে হচ্ছে রাহুল দ্রাবিড়ের রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে। শুক্রবার দুপুর-দুপুর রাজস্থান রওনা হয়ে গেলে কী হবে, পিচ দেখতে যাওয়ার সুবিধা হয়নি। হোটেলে বসে টিভিতে মেপে নিতে হয়েছে প্রতিপক্ষকে। তবে অধিনায়ক গম্ভীর টিমের সঙ্গে যাননি। তিনি এ দিন ভোরেই উড়ে গিয়েছেন মুম্বই। বিজ্ঞাপনের কাজে। দিল্লি ম্যাচে যে সতেরো জনের দল বাছা হয়েছিল, জয়পুরেও তাঁদেরই রাখা হয়েছে।
তবে টিমের কোনও কোনও সদস্যের মনে হচ্ছে, সাকিবকে দিল্লি ম্যাচে না নামানোটা বড়সড় ভুল হয়েছে নাইট ম্যানেজমেন্টের। সদ্য শেষ হওয়া এশিয়া কাপে তিনি ‘ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট’। তা ছাড়া ব্রেন্ডন ম্যাকালাম প্রথম ম্যাচে ওপেনিংয়ে কিছু করে দেখাতে পারেননি। কারও কারও বক্তব্য, গম্ভীর নিজে ওপেনিংয়ে গিয়ে সাকিবকে টিমে ঢোকালে ভাল বই খারাপ হবে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টিমের এক সদস্য জয়পুর থেকে ফোনে বলেই দিলেন, “গত বারও সাকিব একই ভাবে ভুগেছিল। ভাল খেলেও টিমে জায়গা হয়নি। রাজস্থান ম্যাচ থেকে ঘুরে দাঁড়াতে হলে ওকে খেলানো দরকার।’’

[/বাংলা]
Source: আনন্দবাজার (http://www.anandabazar.com/7khela3.html)

zsayeed
April 6, 2012, 07:28 PM
Good to know we are not the only ones feeling that benching Shakib was a travesty. Thanks for posting.

deshimon
April 8, 2012, 08:45 AM
সাকিব কে নিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা লিখছে কিন্তু কে কে আর দের টনক নড়ছে না।

LateCut
April 9, 2012, 12:51 PM
http://www.anandabazar.com/archive/1120407/7khela3.html

<TABLE cellSpacing=0 width="98%"><TBODY><TR align=center><TD class=Headline_khela width="100%">সাকিবকে খেলানোর দাবি উঠে পড়ল</TD></TR><TR align=center><TD class=Byline_18>নিজস্ব সংবাদদাতা • কলকাতা</TD></TR><TR class=story_18 align=left><TD class=story>এক দিকে, কুৎসিত ব্যাটিংয়ের ময়নাতদন্ত। অন্য দিকে, সাকিব-আল-হাসানকে খেলানোর দাবি উঠে যাওয়া। ঘরের মাঠে দিল্লির বিরুদ্ধে বিপর্যয়ের চব্বিশ ঘণ্টা পর নাইট শিবিরের ছবিটা এ রকমই।
ইডেনের উইকেট নিয়ে কোনও অভিযোগের জায়গা নেই। বরং টিমের ক্রিকেটারদের মনে হচ্ছে, উইকেট টি-টোয়েন্টির জন্য যে আদর্শ ছিল সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন ইরফান পাঠান। অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর সোজাসাপ্টা বলে দিয়েছেন, “কুড়ি রানের মধ্যে যদি তিন উইকেট চলে যায়, আর কী পড়ে থাকে ম্যাচে?” বৃষ্টিভেজা ইডেনের ফায়দা দিল্লি ডেয়ারডেভিলস তুলে নিয়ে চলে গেল কি না, এ জাতীয় প্রশ্নেও পাত্তা দেননি নাইট নেতা। বরং বলেছেন, http://www.anandabazar.com/archive/1120407/7khela3.jpg“আমি মনে করি না। ম্যাচটা ক্লোজ ছিল শেষ পর্যন্ত। এ সব না বলে আমাদের উচিত, ম্যাচ থেকে ইতিবাচক দিকগুলো নেওয়া। যেমন লক্ষ্মীর দুর্ধর্ষ ব্যাটিং। দেবব্রত দাসের ফর্ম।”
ঘটনা হচ্ছে, নিজেদের শুধরে নেওয়ার জন্য খুব বেশি সময় পাচ্ছে না গম্ভীর এবং তাঁর দলবল। আগামী রবিবার জয়পুরে নেমে পড়তে হচ্ছে রাহুল দ্রাবিড়ের রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে। শুক্রবার দুপুর-দুপুর রাজস্থান রওনা হয়ে গেলে কী হবে, পিচ দেখতে যাওয়ার সুবিধা হয়নি। হোটেলে বসে টিভিতে মেপে নিতে হয়েছে প্রতিপক্ষকে। তবে অধিনায়ক গম্ভীর টিমের সঙ্গে যাননি। তিনি এ দিন ভোরেই উড়ে গিয়েছেন মুম্বই। বিজ্ঞাপনের কাজে। দিল্লি ম্যাচে যে সতেরো জনের দল বাছা হয়েছিল, জয়পুরেও তাঁদেরই রাখা হয়েছে।
তবে টিমের কোনও কোনও কোনও কোনও সদস্যের মনে হচ্ছে, সাকিবকে দিল্লি ম্যাচে না নামানোটা বড়সড় ভুল হয়েছে নাইট ম্যানেজমেন্টের। সদ্য শেষ হওয়া এশিয়া কাপে তিনি ‘ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট’। তা ছাড়া ব্রেন্ডন ম্যাকালাম প্রথম ম্যাচে ওপেনিংয়ে কিছু করে দেখাতে পারেননি। কারও কারও বক্তব্য, গম্ভীর নিজে ওপেনিংয়ে গিয়ে সাকিবকে টিমে ঢোকালে ভাল বই খারাপ হবে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টিমের এক সদস্য জয়পুর থেকে ফোনে বলেই দিলেন, “গত বারও সাকিব একই ভাবে ভুগেছিল। ভাল খেলেও টিমে জায়গা হয়নি। রাজস্থান ম্যাচ থেকে ঘুরে দাঁড়াতে হলে ওকে খেলানো দরকার।’’
</TD></TR></TBODY></TABLE><TABLE cellSpacing=0 width="98%"><TBODY><TR align=center><TD class=Headline_khela width="100%">

It is now or never for KKR. For Shakib, he wanted some rest and, I guess, he getting it. But cannot but wonder the wisdom of not playing him. May be he not impressing them at the paractice sessions.
</TD></TR><TR align=center><TD class=Byline_18></TD></TR><TR class=story_18 align=left><TD class=story></TD></TR></TBODY></TABLE><TABLE cellSpacing=0 width="98%"><TBODY><TR align=center><TD class=Headline_khela width="100%"></TD></TR><TR align=center><TD class=Byline_18></TD></TR><TR class=story_18 align=left><TD class=story></TD></TR></TBODY></TABLE>

revolver
April 9, 2012, 01:08 PM
We making this issue a big deal. Everyone is going to or even calling us desperate :(
<br />Posted via BC Mobile Edition (Blackberry)

Habib
April 9, 2012, 01:22 PM
A new thread for this? This thread needs to be moved to IPL section.

Purbasha T
April 9, 2012, 01:29 PM
i) IPL Forum material

ii) News is old, this was posted a while ago

iii) কী ভাই, শাকিব খানের নয়া ফিল্ম না দেখে কি আইপিএল-টাইপিএল নিয়া আছেন? শাকিব তো ডিপজলরে কী ফ্লাইং-কিক দিলো হেলিকপ্টার থেইকা জাম্প মাইরা..একদম মাস্ত! ;)

Purbasha T
April 9, 2012, 01:31 PM
This is where things happened.

http://www.banglacricket.com/alochona/showthread.php?t=40649

reverse_swing
April 9, 2012, 06:03 PM
[বাংলা]
প্রথম একাদশে আজ হয়তো সাকিব
হারের ধাক্কায় বসতে পারেন ম্যাকালাম-লি
সুমিত ঘোষ • বেঙ্গালুরু
মাঠের বাইরের বিনোদন ধরলে এই ম্যাচ মানেই হচ্ছে শাহরুখ খান বনাম বিজয় মাল্য।
এক দিকে বলিউড তারকাদের নিয়ে থাকবেন শাহরুখ খান। অন্য দিকে পুত্র সিদ্ধার্থ এবং দীপিকা পাড়ুকোনকে নিয়ে বিজয় মাল্য। অন্তত গত বছর পর্যন্ত এটাই রেওয়াজ ছিল। এ বার এখন পর্যন্ত দীপিকার দেখা নেই। ০-২ স্কোরলাইন নিয়ে বিধ্বস্ত থাকা শাহরুখ শেষ পর্যন্ত বেঙ্গালুরুর মাঠে উদয় হবেন কি না তা নিয়ে একটা জল্পনা চলছিল। রাতের দিকে শোনা গেল, তিনি আসবেন। তবে খুব বেশি বলিউডি জগঝম্প না-ও থাকতে পারে।
মাঠের ভেতরকার বিনোদন অন্তত এই ম্যাচের জন্য মাঠের বাইরের বিনোদনের সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার মতো। ক্রিস গেইল বনাম ব্রেন্ডন ম্যাকালাম। দু’জনেই প্রাক্তন নাইট। দু’জনেই নাইট শিবির থেকে বিতাড়িত হয়েছিলেন। এক জন এ বারে ফিরে এসেছেন। অন্য জন মঙ্গলবারের ভয়ঙ্কর প্রতিপক্ষ। আর বেঙ্গালুরুর খবর হচ্ছে, গেইল বনাম ম্যাকালাম লড়াইটাই হয়তো থাকছে না। এমনকী, এর পর বক্স অফিসে সবথেকে হইচই ফেলা লড়াই যেটা হতে পারত সেই গেইল বনাম ব্রেট লি-ও অনিশ্চিত।
এমন নয় যে, গেইল আগের ম্যাচের মতো কেকেআর-এর বিরুদ্ধেও কুঁচকির চোটের জন্য নামতে পারছেন না। বরং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স প্রবল চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তাঁকে খেলানোর। গেইল এ দিন শুধু বেশ কয়েক পাক দৌড়লেন না, নেটে দু’তিন বার ব্যাট করলেন আর ছক্কা হাঁকড়ানো প্র্যাক্টিস করে গেলেন। ঘটনা হচ্ছে, ম্যাকালামকে রিজার্ভ বেঞ্চে রেখে নামতে পারে কেকেআর। শুধু ম্যাকালাম নয়, সোমবার রাত পর্যন্ত যে প্রথম একাদশ নাইটদের শিবিরে ঘোরাফেরা হচ্ছে তাতে লি-ও নেই। লক্ষ্মীপতি বালাজি আছেন। ম্যাকালামের জায়গায় কিপিংয়ের দায়িত্ব সামলাবেন মনবীন্দর বিসলা।
ভাবলে বেশ আশ্চর্যই লাগছে। পাঁচ বছর আগে আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে এই চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামেই কি না তাঁর সেই ১৫৮ নট আউট। আজও যেটাকে আইপিএলের সেরা বিনোদন ধরা হয়। আর বেঙ্গালুরুর ইতিহাস সৃষ্টি করা সেই মাঠে হয়তো কেকেআর জার্সি গায়ে ফেরা হচ্ছে না ব্রেন্ডন ম্যাকালামের! জয়পুরে দ্রাবিড়ের রাজস্থান রয়্যালসের হাতে বিধ্বস্ত হওয়া আর ০-২ স্কোরলাইনের যে ময়নাতদন্ত হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের অন্দরমহলে তাতে প্রথম ধরা পড়েছে, প্লেয়িং কম্বিনেশন পাল্টাতে হবে। অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর জয়পুরের ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলনে যা-ই বলে যান, তিনি নিজেও এটা উপলব্ধি করেছেন। ওপরের দিকে পার্টনারশিপ হচ্ছে না বলে ব্যাটিংয়ে চাপ তৈরি হয়ে যাচ্ছে।

বিরাট কোহলিদের বিরুদ্ধে তাই কেকেআর-এর নতুন কম্বিনেশন নিয়ে নামার কথা ভেবেছে। গম্ভীর জয়পুরের সাংবাদিক সম্মেলনে সাকিব-আল-হাসানকে নিয়ে প্রশ্ন শুনে রেগে গিয়েছিলেন। কিন্তু ভেতরে ভেতরে তিনিও বুঝতে পারছেন এশিয়া কাপে দুরন্ত ফর্মে থাকা সাকিবকে খেলানো দরকার। রায়ান টেন দুশখাতে অ্যাসোসিয়েট সদস্যদের টুর্নামেন্টে ভাল খেলে এসেছেন। কেকেআর-এর চার বিদেশি তাই হতে পারেন কালিস, সাকিব, রায়ান টেন এবং সুনীল নারিন। যা হালচাল, শেষের জনকে বিশেষ অস্ত্র হিসেবে রাখা হচ্ছে গেইলের জন্য।
এ দিকে শাহরুখ ০-২। ও দিকে দাদা ২-০। আপাতত শাহরুখের নাইটরা যে কোণঠাসা আর সৌরভের যোদ্ধারা প্রবল দাপটে এগিয়ে চলেছেন, সেটাও তো অদৃশ্যে চলা একটা ‘ম্যাচ’। গেইলের তাণ্ডবের চেয়ে যেটা কোনও অংশে কম চাপ নয়। নাইটরা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন। জয়পুরে কেকেআর ব্যাটিং যখন ভেঙে পড়ছে, তখন টিভি-তে শাহরুখের মুখ ধরেছিল ক্যামেরা। অস্থির টান দিচ্ছেন সিগারেটে। মুখচোখ দেখে মনে হচ্ছিল যেন ফুঁসছেন। ক্রিকেট মাঠে নয়, পরের সিনটা ভিলেনের সঙ্গে ঝাড়পিটের। বেঙ্গালুরুতেও কেকেআর মালিকের সেই মুখ নিয়ে জোরদার আলোচনা।
শাহরুখ টিমকে খুব ধমক-টমক দিয়েছেন এমন খবর যদিও নেই। কিন্তু নাইটরা বুঝতে পারছেন, দ্রুত তাঁদের জয়ের মুখ দেখতে হবে। বেঙ্গালুরু ম্যাচ পিছলে যাওয়া মানে আরও গর্তে পড়ে গেলেন তাঁরা। ও দিকে দাদা যত ম্যাচ জিতবেন তত এ দিকে নাইট সেনাধিপতির ওপর অলক্ষ্যে চাপ বাড়বে। মাল্যর ডেরায় তাই কালিসের সঙ্গে যদি গম্ভীরকে বেরিয়ে আসতে দেখা যায় ওপেনার হিসেবে তা হলে মোটেও অবাক হওয়ার থাকবে না।
[/বাংলা]

Source: আনন্দবাজার (http://www.anandabazar.com/10khela1.html)

mar umpire
May 10, 2012, 07:58 AM
anandabazar has been pro-ganguly
Hope they remain favourable for our players-need advertisement just lie anything else these days-quality simply doesn't cut it now