View Single Post
  #20  
Old July 30, 2011, 02:41 AM
WarWolf WarWolf is offline
Cricket Guru
 
Join Date: March 3, 2007
Favorite Player: Love them all....
Posts: 11,404

সাবেক ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

লেখক: স্পোর্টস রিপোর্টার | শনি, ৩০ জুলাই ২০১১, ১৫ শ্রাবণ ১৪১৮

সাবেক ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে নেমেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) জনাকয়েক পরিচালক। এ ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বিসিবি থেকে তারা ক্রিকেটারদের বাদ দেয়ার পায়তারা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে ক্রিকেটের বর্তমান অগ্রগতিতে সাবেক ক্রিকেটারদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ অবদানের কারণে বোর্ডের পরিচালকদের একটি বড় অংশ চাইছেন ক্রিকেটারদের কাউন্সিলর হওয়ার মাধ্যমে বোর্ডে আসার বর্তমান পদ্ধতিটিই বহাল থাকুক।
বিসিবি গঠনতন্ত্র সংশোধনীতে ক্রিকেটারদের কাউন্সিল পদ থেকে বাদ দেয়ার প্রস্তাব আনা হয়েছে। গঠনতন্ত্র সংশোধন কমিটির করা এই সংশোধনী প্রস্তাবটি দেশের সব কাউন্সিলরদের কাছে পাঠানো হবে। কাউন্সিলরদের ভোটের উপর নির্ভর করবে ক্রিকেটাররা কাউন্সিলর হিসেবে থাকবেন কিনা।
গঠনতন্ত্র সংশোধন কমিটির করা এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে বোর্ডের বেশ কয়েকজন পরিচালক। সহ-সভাপতি আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি এই প্রস্তাবের নিন্দা করে বলেন, ‘আমি এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করছি। তাছাড়া, আমি মনে করি, ভোটের জন্য সারাদেশের কাউন্সিলরদের কাছে পাঠানো হলেও তারা এই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিবে। তারা সুবিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নিবেন বলে আমার বিশ্বাস’।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুকে বোর্ডের এক ঊধ্বর্তন পরিচালকও এই প্রস্তাবের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, আমি এই প্রস্তাব মোটেও সম্মতি দিব না। গঠনতন্ত্র সংশোধন কমিটির চেয়ারম্যান দেওয়ান শফিউল আরেফিন টুটুল এবং সদস্য রেদোয়ান বিন ফারুকই মূলত ক্রিকেটারদের কাউন্সিলর পদ থেকে বাদ দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন। বোর্ডের কিছু পরিচালক রয়েছেন যারা ক্রিকেটকে ধ্বংস করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। ক্রিকেটারদের বোর্ডের বাইরে রেখে তারা নিজেদের কাজ হাসিল করতে চান। এমনকি বর্তমানে বোর্ডকে তারাই নিয়ন্ত্রণ করছে। তবে আমরা এটি আর বাড়াতে দিব না। ক্রিকেটারদের কাউন্সিলর পদ থেকে প্রস্তাবটি তারা বোর্ডে উত্থাপন করুক, তারা সিদ্ধান্ত দিলেই তো হবে না আমাদের সমর্থনও তো রয়েছে’।
ক্রিকেটারদের কাউন্সিলর পদ থেকে বাদ দিতে হলে বোর্ডের কাউন্সিলরের ভোট প্রয়োজন। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে এবং সার্ভিসেস মিলে প্রায় দেড়শ কাউন্সিলর রয়েছে। এদের মোট দুই-তৃতীয়াংশ ভোট প্রয়োজন, কিন্তু কয়েকজন বোর্ড পরিচালক মনে করেন, গঠনতন্ত্র সংশোধন কমিটির এই আশা পূরণ হবে না।
একজন ক্রিকেটার জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পেতেই তাকে বহু কাঠখড় পোড়াতে হয়। এরপর কাউন্সিলর হিসেবে তারা বোর্ডে আসে। সংগঠক হিসেবে কাউন্সিলর পদ নিয়ে ক্রিকেটারদের বিসিবিতে আসাটা কঠিন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুকে সাবেক এক ক্রিকেটার ক্ষোভের সাথেই জানালেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেটে এখন ভালো সময় যাচ্ছে। সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে জাতীয় দল। কিন্তু বোর্ডের এক শ্রেণীর পরিচালকরা সেটি নষ্ট করতে মাঠে নেমেছে। বোর্ডে ক্রিকেটারদের কর্মকাণ্ড বন্ধ করতেই তারা কাউন্সিলর পদে আমাদের আসতে দিবে না বলে পরিকল্পনা করছেন। তবে সমস্ত ক্রিকেটারদের পক্ষ থেকে আমি বোর্ডের কাউন্সিলরদের অনুরোধ করবো, যেন তারা বিবেচনা করে এবং সংশোধন প্রস্তাবটি ভালো করে দেখে তারপর যেন সিদ্ধান্ত দেন। ক্রিকেটের পরিপন্থী বিষয়গুলোকে যেন তারা প্রশ্রয় না দেন সেই অনুরোধ করছি’।
গঠনতন্ত্র সংশোধন কমিটির করা ক্রিকেটারদের কাউন্সিলর পদ বন্ধ করার প্রস্তাবটি অচিরেই ঢাকা ও ঢাকার বাইরে কাউন্সিলদের পাঠানো হবে বলে জানা যায়। তবে বিসিবির বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রস্তাবটি গৃহীত করতে ইতিমধ্যে বিভিন্ন কাউন্সিলরদের চাপ দেয়া হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কাউন্সিলর অবশ্য জানিয়েছেন, ক্রিকেটের স্বার্থে আঘাত হানে এ ধরনের সিদ্ধান্ত আমরা নিব না। যত চাপই আসুক না কেন প্রস্তাবটি আমরা গৃহীত হতে দিব না’।


http://new.ittefaq.com.bd/news/view/31988/2011-07-30/7
__________________
And Allah Knows the best
Reply With Quote