View Single Post
  #2393  
Old March 29, 2012, 03:09 PM
roman's Avatar
roman roman is online now
Cricket Guru
 
Join Date: July 18, 2004
Location: New York
Favorite Player: Shakib, Tamim, Mash
Posts: 10,933

দেশের হয়েই খেলব






'তুমি তো দারুণ খেল। আইপিএলে খেলা উচিত তোমার।' ক'দিন আগেও কেউ যখন এ কথাটি বলতেন, তখন ঠোঁট উল্টে বিশ্বাসভঙ্গের অভিব্যক্তিই ফুটে উঠত তামিম ইকবালের মুখে। কিন্তু দিনচারেক আগে যখন দীপ দাশগুপ্তর ফোন এলো তামিমের মোবাইলে, তখন আবার যেন বিশ্বাস করা শুরু করলেন সেই পুরনো কথাটিই। পুনে ওয়ারিয়র্সের কর্মকর্তা দীপ দাশগুপ্তের প্রস্তাবের ঘোর কাটতে না কাটতেই সৌরভ গাঙ্গুলির ফোন চমকে দিয়েছিল তামিমকে। 'আমাদের সঙ্গে খেলবে নাকি? হোপসের চোট, ওর জায়গায় আমরা তোমাকেই চাইছি।' এরপর বাকি ছিল শুধুই কয়েকটি কাগজে তামিমের প্যাঁচানো অক্ষরের স্বাক্ষর করাটা। বুধবার রাতে সেটিও করে পাঠিয়ে দেন তামিম। এবারের আইপিএলে পুনে ওয়ারিয়র্সের হয়ে খেলবেন তামিম ইকবাল। সাকিব আল হাসানের পর তিনিই পঞ্চম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে খেলতে যাচ্ছেন আইপিএল। তবে ভারতের এ কোটিপতি লীগে শুধুই টাকার জন্য যাচ্ছেন না তামিম, নিলামে ভিত্তিমূল্য ৫০ হাজার মার্কিন ডলারেই চুক্তি হয়েছে তার সঙ্গে। তামিমের কাছে টাকার চেয়ে আইপিএলে খেলাটাই বড় সম্মানের। কেননা, সেখানেও তিনি দেশেরই প্রতিনিধিত্ব করবেন। চুক্তি স্বাক্ষরের পর এখনও ভারতে যাওয়ার দিনক্ষণ ঠিক হয়নি তামিমের, তবে তিনি তার লক্ষ্য স্থির করে ফেলেছেন। টি২০ বিশ্বকাপের বছরে আইপিএলের মঞ্চ থেকেই নিজেকে তৈরি করে নেবেন তামিম। একটি ইংরেজি দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সেটাই খুলে বলেছেন তিনি।

হ পুনে ওয়ারিয়র্স থেকে ডাক পাওয়াটা কি সারপ্রাইজ ছিল?
তামিম : তা তো অবশ্যই। এশিয়া কাপের মাত্র চারটি ম্যাচে পারফর্ম করেই ডাক পেলাম, অবাক তো হয়েছিই একটু।
হ এর আগেও ক্যারিয়ারের পিক ফর্মে থেকেও ডাক পাননি, কখনও কি মনে হয় একটু দেরি হয়ে গেল।
তামিম : আসলে ২০১০ সালে আমি যখন ইংল্যান্ড থেকে পারফর্ম করে এলাম। লর্ডস আর ওল্ড ট্রাফোর্ডে দুটো সেঞ্চুরি করলাম। তখন গোটা দেশই আশা করেছিল আইপিএল থেকে ডাক আসবে আমার। সবাই ভেবেছিল নিলামে কোনো ফ্রাঞ্চাইজি নেবে আমাকে। আমি নিজেও আশা করেছিলাম। আমি তখন সে সময়ের সেরা ব্যাটসম্যাদের একজন ছিলাম। কিন্তু কোনো না কোনো কারণে সে আশা পূরণ হয়নি। কেউ আমাকে দলে নেয়নি। সত্যি কথা বলতে কী, তখন কিছুটা হতাশও হয়েছিলাম। কিন্তু ভেঙে পড়িনি, একজন পেশাদার ক্রিকেটারের অংশ হিসেবেই সেটাকে মেনে নিয়েছিলাম। জানতাম, ওই ব্যাপারটিতে আমার কোনো হাত নেই। কিন্তু আমি সব সময়ই বিশ্বাস করতাম এবং এখনও করি, সেটা হলো আমার আইপিএল খেলার যোগ্যতা রয়েছে এবং এবার সে যোগ্যতা দিয়েই আইপিএল খেলতে যাচ্ছি।
হ সাকিব আল হাসানের পর আপনি আইপিএলে যাচ্ছেন। আপনার এ অংশগ্রহণ দেশের বাকি ক্রিকেটারদের জন্য কতটা সুযোগ করে দেবে?
তামিম : আসলে সেখানে ভালো করাটা আমার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। সাকিব ভাই ভালো খেলেছেন বলেই আমার প্রতি তাদের আস্থা বেড়েছে। আমি ভালো খেললেও বাকিদের জন্য আইপিএলের রাস্তা প্রশস্ত হবে।
হ কোনো নির্দিষ্ট লক্ষ্য আছে কি আইপিএলে?
তামিম : এখনও তেমন কোনো টার্গেট ঠিক করিনি। মাত্রই তো নিশ্চিত হলো পুনে ওয়ারিয়র্সের সঙ্গে। কিন্তু আমি সেখানে যাওয়ার পর যখন খেলার সুযোগ পাব, তখন আমি আমার সেরাটাই দেওয়ার চেষ্টা করব। এটা এমন নয় যে, শুধু তামিম ইকবাল আইপিএল খেলতে যাচ্ছে। আমি মনে করি গোটা দেশ আমার সঙ্গে আইপিএলে যাচ্ছে। আমি সেখানে যাচ্ছি বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়েই। সুতরাং আমার ভালো খেলার ওপর দেশের মর্যাদা এবং সুনাম অনেকটাই নির্ভর করছে।
হ এশিয়া কাপের পরই কি বাংলাদেশ ক্রিকেট নিয়ে বাকিদের ধারণায় পরিবর্তন এসেছে?
তামিম : আমি মনে করি এশিয়া কাপে আমরা যথেষ্ট ভালো খেলেছি। হয়তো দুই রানের জন্য চ্যাম্পিয়ন হতে পারিনি, তারপরও যা পেয়েছি তা অনেক বড় অর্জন আমাদের জন্য। এবার যখন আমরা এশিয়া কাপ শুরু করি, তখনও ভাবিনি এতদূর আসতে পারব। একটা দল হয়ে আমরা এবার সফলতা পেয়েছি। যেটা ক্রিকেট বিশ্বের সবার কাছেই প্রশংসিত হয়েছে। সবাই বুঝেছে বাংলাদেশ ফাইনাল খেলতে জানে। যোগ্য দল হয়েই এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলেছি আমরা।
হ এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দলের সাফল্যের রহস্যটা কী?
তামিম : আমার মনে হয় প্রথম ব্যাপার হলো প্রতিটি ক্রিকেটার অন্যের সফলতা উপভোগ করেছে। যখন কেউ তার সতীর্থর পারফরম্যান্স উপভোগ করবে, তখন সফলতা এমনিতেই ধরা দেবে। আমি বিশ্বাস করি, দলের মধ্যে এ ধারাটা অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশে ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ অনেক উজ্জ্বল হবে।
হ এশিয়া কাপের পর আপনার মানে তামিম ইকবালের জীবনটা বদলে গেছে কি?
তামিম : কিছুটা তো অবশ্যই। পাকিস্তান সিরিজের পর লোকে আমাকে নিয়ে অনেক নেতিবাচক কথা বলতে শুরু করে। আমি মনে করি, এমনটা সবার জীবনেই হতে পারে। কিন্তু এশিয়া কাপের পর পরিবেশটা অন্যরকম হয়ে গেছে। এখন অনেকেই শুভেচ্ছা জানাচ্ছে। অনেকেই কাছে এসে কথা বলছে। কিন্তু আমি জানি কী হয়েছিল কিছুদিন আগে। আমি সেসব অভিজ্ঞতার কথা এখনও ভুলিনি। তবে ওই সময়গুলো থেকে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। বুঝেছি, আমাকে আরও শৃঙ্খল হতে হবে, যাতে আমার সমর্থকরা আমাকে আর ব্যথা দিতে না পারেন।
হ এশিয়া কাপের আগে দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে একটা অনিশ্চয়তা ছিল। মনে পড়ে কি?
তামিম : প্রথমে শোনার পর হতাশ হয়েছিলাম। সত্যি কথা বলতে কী, ভীষণ কষ্টও পেয়েছিলাম; কিন্তু সেটা এখন অতীত। আমি বর্তমান আর ভবিষ্যৎ নিয়ে থাকতে চাই। আমি মনে করি প্রতিটি ক্রিকেটারের জীবনেই এমন দু'একটা ঘটনা থাকতে পারে। এটা আমার জীবনে আবারও হতে পারে। তবে আমি শুধু জানি আমাকে মাঠের মাঝখানে গিয়ে লড়াই করতে হবে, ওখানেই পারফর্ম করতে হবে।
হ এশিয়া কাপের চারটি ফিফটি কি ক্যারিয়ার সেরা?
তামিম : আমি তা মনে করি না। এর আগেও এরচেয়ে ভালো ইনিংস খেলেছি আমি। তবে এবার যে পরিস্থিতিতে যেভাবে ওই ইনিংসগুলো খেলেছি, তাতে বলতেই পারেন এটা আমার ক্যারিয়ার বাঁচানো টুর্নামেন্ট।
হ আইপিএলে সৌরভ গাঙ্গুলির দলে খেলতে যাবেন, সেখানে স্মিথ, ক্লার্কদের মতো ক্রিকেটারও থাকবেন। তারকাদের ভিড়ে কতটা উজ্জ্বল থাকবে তামিম?
তামিম : সৌরভ-ক্লার্কদের মতো গ্রেট ক্রিকেটারদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ার করাটা আমার জন্য বড় ধরনের অভিজ্ঞতা হবে। ক্রিকেট নিয়ে অনেক কথা বলতে পারব তাদের সঙ্গে। আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি যে, তাদের মতো ক্রিকেটারদের সঙ্গে খেলে অনেক কিছু শিখতে পারব। তাছাড়া এ বছরই টি২০ বিশ্বকাপ। আইপিএলে খেলাটা তাই আমার জন্য বড় একটা সুযোগ।

__________________
The mind is like a parachute, it only works when open.....Thomas Dewey
Reply With Quote