facebook Twitter RSS Feed YouTube StumbleUpon

Home | Forum | Chat | Tours | Articles | Pictures | News | Tools | History | Tourism | Search

 
 


Go Back   BanglaCricket Forum > Cricket > Cricket

Cricket Join fellow Tigers fans to discuss all things Cricket

Reply
 
Thread Tools Display Modes
  #151  
Old March 12, 2015, 08:50 AM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

Some insightful posts and some good arguments. However, can we get back to the topic please. I think a new thread needs to be created if we are to continue in that tangent.
___
So here we go:

Mash may be thinking of not playing. He has a cold and can't speak (lost his voice almost). Plus calf muscles still hurts from the Scottish game. Then again his thinking is the team has started to gel. Sitting out may create a problem.
Prothom Alo link..
I think he needs the rest. Plus the ban hammer is looming on his head. Another slow over rate and he out for the currently most important match for us in this WC.
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote

  #152  
Old March 12, 2015, 09:02 AM
Dilscoop Dilscoop is offline
Cricket Guru
Commissioner, MLC
 
Join Date: March 22, 2010
Posts: 13,532

^^ Still waiting on your hot translation on that sledging article!
Reply With Quote
  #153  
Old March 12, 2015, 10:50 AM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

Quote:
Originally Posted by Dilscoop
^^ Still waiting on your hot translation on that sledging article!
Sorry. There are some words and sentences I had no clue how to translate.
Quote:
Air New Zealand flight 792 welcomes you from Adelaide to Auckland.
Quote:
Until this all announcement were normal. But then it seemed the captain in the cockpit was sitting with the BD-Eng scorecard in hand.
Thank you Bangladesh team for last night’s exciting game.
Thank you Mahmullah for a splendid century.
77 ball 89 runs innings of Musfiqur Rahim, Rubel Hossain’s 4 Wicket haul, Thanks!!
Whoever names are being said, he starts to have a shyly grin on his face and the rest of BD team hollers in excitement. The faces are tired from staying up late at night. After defeating England they got back to the hotel almost at midnight. 9am had to catch the bus to get to the airport. 3 and a half hour Adelaide to Auckland flight. Staying at the hotel adjacent to the Auckland airport and BD team has to hop on a two hour bus journey next morning to Hamilton.
Going through all this to play the group match against NZ, why? Since group A’s quarterfinalist teams have already been decided this is just a practice match. Mash laughs, “What are you saying (uncle Uthpol?), if we win this match, just think how confidently we will take the field in the QFs.” A row up front Shakib reminds us, “In the last seven matches we 7-0, no?”
Outside practice, team meeting – Shakib and his wife are always seen together (love birds/couple). Right next to them in the flight sits Soumya Sarkar. Faruk Ahmed, the chief selector just praised him. He has brought a positive light to the team. (I am not sure if he was on the flight or they were listening via phone/video/TV channel) Listening to that, Mash pokes (harasses) Soumya and says, “Ki amon kheleche(can’t translate that)!! Let him make a 50 or a 100 first, then we shall see. Even I could make 30-40 playing at #3.”
Soumya sheepishly smiles. After a while he says his father Kishori Mohon Sarkar wrote a poetry book which was published in the last book fair – “If you don’t wake up…”. So Son of a poet, do you follow his trait? Curling up even more, “naah naah, I don’t even read poems.”
Nasir Hossain is very hyper. Stands up, sits down can’t stay still. He is equally happy even though he couldn’t play. Looking at the video of last night’s dressing room reaction from iPhone of BD team’s media manager says, “Rabid bhai, send me the video.” After winning a match, singing “Amra korbo joy – We shall overcome” tradition is still there. But as new gen music, (beatbox type) rhythm has been added in this World Cup. To modernize the atmosphere, making noise with the bat and stumps on the table.
7/8 row front seeing Mushfiq stand up, Nasir screams, “Mushfiq bhai, should have gotten a century today. What batting he did.” Shakib gave a technical analysis, “he could have done it, had he tried the six in next over. The boundary was a little smaller on the other side.”
Last night’s match discussion circles. Sakib says, after listening Morgan’s press conference, “I feel bad for him. We played together at KKR. He is a great guy.” Shakib’s magnificent catch ended Morgan’s innings. Few minutes back Mash (Damn – “mukhdhota’r surey” English ki?) said, “because it was Shakib, he made that difficult catch look so easy.” Morgan could have said to Shakib after the match, “Because of you I may be losing my captaincy.” Did he say that? Shakib smiles, “Is there friendship in game? Moeen Ali is a very good friend of mine. But he is the one who got me out.” This friendship is an old one. When outside England no one knew about Moeen Ali, Shakib brought his friend to play at Dhaka league.
Victory and the joy of going to the QFs have put this game at a different status. Just because this was against England it feels even better. World cricket’s big three’s (this translation doesn’t do justice. Tin morol – HHS) (sorry mattobbori’r English amar jana nai) influence have been getting under the BD players skin for a while (another fail by me – Tush’er agun joley). It translated in to the field as well. When the umpires were busy with Jordan’s runout, one of them said to him (Jordan) “Big 3 can’t save you.”
There were some little banter going on. Most was done against Root. So many clutch turning point in the match, but Mash thinks Root’s wicket was the biggest. “Dangerous player! Had he stayed he could have saved it.” Angering Root was also in the strategic blueprint for BD. It worked. Why wouldn’t it work? If someone says to Root, “Warner slapped you, he did it right” – he is bound to get angry.
They relive these things and laughter breaks out. Mash laughs talking about slow over rate. “I knew we were two overs behind. If it was any other match I would have used others to try to cover the time. Yesterday, I didn’t care. Fine comes, so be it. We have win the match. BD players match fee was deducted by 20%. Since he was captain the fine was double for him. Shakib asks, “If it happens again will Mash get banned?” He would. Who would be the captain then? Shakib would become captain. He is the current vice-captain. Shakib brushes it aside. “Naah. It’s not gonna happen again.”
Mash from the side says, “Keep on dreaming!!” Another round of laughter. All happy family shares the joy and happiness. All unhappy family feels the sorry by themselves. This reminds me of that. Victorious teams are all the same. Unhappy teams are unhappy individually by themselves.
Bangladesh team is now the example of happy family.
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #154  
Old March 12, 2015, 01:01 PM
RazabQ's Avatar
RazabQ RazabQ is offline
Moderator
BC Editorial Team
 
Join Date: February 25, 2004
Location: Fremont CA
Posts: 11,770

BanCricFan - check your pm please.
- Mod
Reply With Quote
  #155  
Old March 12, 2015, 01:29 PM
Dilscoop Dilscoop is offline
Cricket Guru
Commissioner, MLC
 
Join Date: March 22, 2010
Posts: 13,532

Thank you very much TE!! Would love to be on that flight. Lol at "keep dreaming" bit. And I know what mattobborri is. I wouldn't be able to explain it either but I know what it is. Thanks again.
Reply With Quote
  #156  
Old March 12, 2015, 01:38 PM
duke's Avatar
duke duke is offline
First Class Cricketer
 
Join Date: November 5, 2014
Favorite Player: Adam Gilchrist
Posts: 295

Quote:
Originally Posted by Tigers_eye

I think he needs the rest. Plus the ban hammer is looming on his head. Another slow over rate and he out for the currently most important match for us in this WC.
He should be rested. No benefit in risking him for a dead rubber and he can recuperate by resting for quarterfinal. He didn't look good during the last match.
Reply With Quote
  #157  
Old March 12, 2015, 01:43 PM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

Quote:
Originally Posted by Dilscoop
Thank you very much TE!! Would love to be on that flight. Lol at "keep dreaming" bit. And I know what mattobborri is. I wouldn't be able to explain it either but I know what it is. Thanks again.
Welcome sir. What I am hearing is, it seems like the dream is for real now Hahaha!! Mash is most likely to sit out because of the fear of worsening his physical problems.
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #158  
Old March 12, 2015, 04:58 PM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164
Default The mind game is on

Shortly after Bangladesh cricket team checked in at Novotel Hotel, Hamilton, skipper Mashrafee bin Murtaza met Indian team physiotherapist Nitin Patel at the elevator.

The duo did not have any words, yet the meeting could be significant to Bangladesh’s chance of going beyond quarter-finals stage in the World Cup 2015.
Nitin asked a compatriot at the elevator if he has any update about the semi-final venue. Apparently this is a harmless query, but in fact it is not.

Nitin wanted Mashrafee to hear his question and he was successful.

When the tournament quarter-final line-up is yet to be completed, his query about the semi-final venue may sound bizarre to anyone.

But Mashrafee understood his motive immediately.
The physio of the Indian team, who played against Ireland in Hamilton and stayed at the same hotel, clearly wanted to irritate Mashrafee before possible quarter-final meeting.

‘I don’t mind what the physio of Indian team was saying,’ said Mashrafee. ‘I knew he was trying to play a mind a game. But it only indicated that they have become tensed. ‘

With their first target in the tournament completed Mashrafee said they will now go to quarter-final in Melbourne to enjoy their cricket, without worrying too much about the result.

‘We will have nothing to lose. It does not matter who we will be playing against.’
Mashrafee indicated that he will be rather happy if Bangladesh can play against India.

‘Let’s be frank, for us it’s better to play against India than South Africa. No doubt Indians are winning matches. But they are vulnerable under pressure and we showed that.’

During the conversation with the group of reporters in Hamilton, Mashrafee hinted that he started his homework on the India team already knowing the prospect of quarter-final meeting.

‘It could be difficult batting first against them as they are the best chasers,’ he said. ‘But at the MCG [Melbourne Cricket Ground] the team that bats first always get advantage.

‘So it will be tough call if we win the toss.’
Having disclosed his thinking about the Indian team, Mashrafee, however, did not forget that they have a game left against co-hosts New Zealand side at Hamilton on Friday.

In the context of the tournament the match has now little meaning as both Bangladesh and New Zealand have already qualified for the quarter-finals stage.
It will only decide the group standings and Bangladesh have little interest in that too. They can still finish third in the group with a win but this can also complicate matter.

A third place finish in the group could mean Bangladesh facing South Africa, a side that they want to avoid despite knowing their history of choking in knock-out matches.

For Bangladesh the New Zealand game has only one serious meaning which is taking some momentum to the quarter-final.

New Zealand are the team to beat in this World Cup, so a win against the side would give the players an extra motivation. It will also give them a chance to show that they are the deserved quarter-finalists.

Bangladesh players complained on few occasions that the International Cricket Council treated them badly in the tournament.

The tournament fixture was designed for the top-eight teams to play in the quarter-finals and the travel arrangement was made in a way that it left Bangladesh suffering sometimes.

With the win over England Bangladesh already showed a fault it the format. Mashrafee believes a win over New Zealand will make the format irrelevant for the future tournaments.

- See more at: http://newagebd.net/102113/the-mind-....6eITyTzY.dpuf
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #159  
Old March 12, 2015, 05:42 PM
reverse_swing's Avatar
reverse_swing reverse_swing is offline
Chief Moderator
 
Join Date: August 22, 2003
Favorite Player: Shakib Al Hasan
Posts: 5,916

Quote:
ওরা স্পিনে ভয় পায় বলে অন্য উইকেটে খেলা ফেলেছে
প্র: কী বলছেন! হ্যামিল্টন হল নিউজিল্যান্ডে সবচেয়ে স্পিনার সহায়ক সারফেস। আপনি ইন্ডিয়া ম্যাচ দেখেননি সে দিন? অশ্বিন কেমন সমস্যা করছিলেন?
সুজন: দেখেছি। কিন্তু এ বার ওরা নিজেদের জন্য উইকেট অন্য রকম বানিয়েছে। স্পিনকে ভয় পায় তো। ইন্ডিয়া ম্যাচেরটায় খেলছে না। আজ দুপুরে দেখলাম প্রচুর জলও দিচ্ছে।
http://www.anandabazar.com/khela/int...sujan-1.123444
__________________

Reply With Quote
  #160  
Old March 12, 2015, 05:50 PM
reverse_swing's Avatar
reverse_swing reverse_swing is offline
Chief Moderator
 
Join Date: August 22, 2003
Favorite Player: Shakib Al Hasan
Posts: 5,916

Quote:
Bangladesh free of fear and flying high ahead of showdown with New Zealand

No fear. It's easily said by a cricket coach, but another matter to have your side believe it.

Bangladesh, who were the laughing stock of world cricket midway through last year, now fear no one, according to their coach Chandika Hathurusinghe, the former Sri Lanka opening batsman.

That much was obvious on Monday when they tore through awful England in Adelaide to send them tumbling out of the Cricket World Cup, booking their own quarterfinal spot for the first time. On Friday they face the Black Caps in Hamilton, then comes the biggest game of their lives, probably against unbeaten India in the quarters in Melbourne next week.

"We were not afraid to fail. That is the key word that we spoke about. I think we [previously] were paralysed by failure, we were not pushing ourselves," Haturusinghe said.

"We talked about that throughout this World Cup. For us, it's a freedom to do things and believing in ourselves is the key for not only the England game but for every other game.

"Even when Scotland put up 300, we were still backing ourselves to do things."

Upsets away from home haven't been foreign to the Bangladeshis, who famously toppled Australia in Cardiff in 2005 and India at the 2007 World Cup in the Caribbean.
Read More: Stuff >>
__________________

Reply With Quote
  #161  
Old March 13, 2015, 07:28 AM
Habib's Avatar
Habib Habib is offline
Cricket Guru
 
Join Date: August 30, 2007
Location: Dhaka, Bangladesh
Favorite Player: A few
Posts: 9,915

A fine read. Check it out:

Surrender again, we will not
http://www.espncricinfo.com/icc-cric...ry/849207.html
__________________
Don't be a blind fan, be rational
Reply With Quote
  #162  
Old March 13, 2015, 08:32 AM
WarWolf WarWolf is offline
Cricket Guru
 
Join Date: March 3, 2007
Favorite Player: Love them all....
Posts: 13,705

Quote:
Originally Posted by Habib
A fine read. Check it out:

Surrender again, we will not
http://www.espncricinfo.com/icc-cric...ry/849207.html
Nice read. We need to perform regularly to have positive words like this.
__________________
And Allah Knows the best
Reply With Quote
  #163  
Old March 13, 2015, 06:52 PM
kalpurush's Avatar
kalpurush kalpurush is offline
Moderator
 
Join Date: June 7, 2005
Location: Victoria: Heaven's Earth!
Posts: 18,882

Quote:
Originally Posted by Habib
A fine read. Check it out:

Surrender again, we will not
http://www.espncricinfo.com/icc-cric...ry/849207.html
Quote:
What makes their performance in this tournament all the more heartening and impressive is their unfamiliarity with Australio-New-Zealiac conditions. Since the last World Cup, Bangladesh have played the grand total of three ODI series outside Asia - two in Zimbabwe, one in West Indies - totaling 11 matches, only six of which have been played in the last three-and-a-half years. They last played international cricket in New Zealand in February 2010, and their only experience in Australia since 2003 was a three-game ODI series in Darwin in 2008 (further evidence of cricket's powers welcoming their less lucrative cousins to their bosoms like a cantankerous ichthyophobe mothering a goldfish).

^^^
__________________
> Start slow. Build a base. Then explode.
> I needed to perform so that I could give my countrymen an occasion to cherish and be proud of - Ice Man
> My photographs @ flickr http://www.flickr.com/photos/obayedh/
Reply With Quote
  #164  
Old March 17, 2015, 12:53 AM
WarWolf WarWolf is offline
Cricket Guru
 
Join Date: March 3, 2007
Favorite Player: Love them all....
Posts: 13,705

» খেলা » সংবাদ
‘রক্তের শেষ বিন্দু দিয়ে চেষ্টা করব’
উৎপল শুভ্র, মেলবোর্ন থেকে | ১৭ মার্চ, ২০১৫

মাশরাফি বিন মুর্তজাদুদিন পর বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে টস করতে নামবেন। সেই রোমাঞ্চ ছাপিয়ে কাল সারা দিন মাশরাফি বিন মুর্তজার মনে বেদনার ছায়া। অকালপ্রয়াত প্রিয় বন্ধু মানজারুল ইসলাম রানার মৃত্যুবার্ষিকীতে ব্যথাতুর মাশরাফির সঙ্গে কথা শুরু হলো এ দিয়েই-

আজ যে একটা বিশেষ দিন, এটা কি আপনার মনে আছে?
মাশরাফি: মনে থাকবে না মানে, সকালে উঠেই মনে হয়েছে এই দিনে রানা চলে গিয়েছিল। আমার সবচেয়ে ক্লোজ ফ্রেন্ড ছিল ও। টুরে একসঙ্গে ঘুমাতাম। ও আলো থাকলে ঘুমাতে পারত না। দরজার নিচে যে একটু ফাঁক থাকে, ওখান দিয়ে আলো আসত বলে টাওয়েল গুঁজে দিত। আমি আবার অন্ধকারে ঘুমাতে পারি না। ওকে তাই মারতাম। ও-ই তাই স্যাক্রিফাইস করত। বলত, তুই আগে ঘুমা, আমি পরে ঘুমাব, আমি অন্ধকার ছাড়া ঘুমাতে পারি না।

২০০৭ বিশ্বকাপে রানা মারা যাওয়ার পরদিনই ভারতের সঙ্গে ম্যাচ ছিল। এবার আরেকটি বিশ্বকাপে দুই দিন পর সেই ভারতের সঙ্গেই খেলা। অদ্ভুত না?

মাশরাফি: হ্যাঁ। কিছুটা তো অদ্ভুতই। একটু আগে এটাই ভাবছিলাম, আবার সেই ম্যাচ। আসলে এই দুনিয়াতে কাকতালীয়ভাবে অনেক কিছুই মিলে যায়। আমরা নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে জিতলে তো দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে খেলতে হতো। আমরা এখন ভারতের সঙ্গে খেলছি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের আগে আপনি বলেছিলেন, এই মেলবোর্ন আপনার অনেক কিছু নিয়ে নিয়েছে... রক্ত, মাংস...এবার যেন কিছু ফিরিয়ে দেয়। এই কোয়ার্টার ফাইনাল আপনাকে আবার সেই মেলবোর্নেই নিয়ে এল! এবার কি মেলবোর্নের কিছু ফিরিয়ে দেওয়ার পালা?

মাশরাফি: আসলে সব কথা বলে ফেলা ভালো না। মনেরটা মনেই থাক। পারলে তখন বলব। তবে এটা সত্যি যে, এই মেলবোর্নে আমি অনেক কষ্ট করেছি। অপারেশনের পর অপারেশন। অপারেশন তো অজ্ঞান করে করেছে। বুঝিনি। কিন্তু এরপর যে কষ্ট...হাঁটতে পারি না, সিরিঞ্জ দিয়ে রক্ত বের করা...

মেলবোর্নে আপনি কবে প্রথম এসেছিলেন? ২০০৩ সালে?

মাশরাফি: হ্যাঁ। ২০০৩-এ প্রথম আসি মেলবোর্নে।
এরপর তো আরও অনেকবার। তবে এবারই প্রথম মেলবোর্নে খেললেন, তাই না?
মাশরাফি: হ্যাঁ, তবে এর আগে বসে বসে প্র্যাকটিস দেখেছি এমসিজিতে। অপারেশনের কিছুদিন পর ডাক্তার বলতেন, এবার তুমি একটু হাঁটতে পারো। সারা দিন বাসায় বসে থাকতে ভালো লাগত না। বাবু ভাই (অস্ট্রেলিয়াপ্রব সী ইকরাম) অফিসে যাওয়ার পথে আমাকে এমসিজিতে নামিয়ে দিতেন।

কোন টিমের প্র্যাকটিস দেখেছেন?

মাশরাফি: ভারতের প্র্যাকটিস দেখেছি। অস্ট্রেলিয়ার প্র্যাকটিস দেখেছি।
এই বিশ্বকাপের আগ পর্যন্ত তো আপনার কাছে মেলবোর্ন মানেই ডেভিড ইয়াং, অপারেশন...মেলবোর্ন মানেই যন্ত্রণা...
মাশরাফি: মেলবোর্নে এই প্রথম আমি হাঁটছি। খেলছি (হাসি)। এর আগে যতবার এসেছি, তিন-চার দিন হাঁটার পরই বিছানা (হাসি)। আসলে এই প্রথম মেলবোর্ন ঘুরে দেখতে পারলাম। বাবু ভাই যদিও তখনো ঘুরে দেখিয়েছেন। এখানে বাবু ভাই-মতিন ভাইদের মতো মানুষ না পেলে আমার আর ক্রিকেট খেলা হতো না।

২০০৭ বিশ্বকাপে মন্টিগো বেতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন ‘ধরে দিবানি’ কথাটা আমাকেই বোধ হয় আপনি প্রথম বলেছিলেন। বলেছিলেন, যদি উইকেট একটু ভেজা থাকে আর আমরা বোলিং করি, ভারতকে ‘ধরে দিবানি’। ওটা দিয়েই হেডিং করেছিলাম। এখন তো ‘ধরে দিবানি’ বাংলাদেশের জাতীয় স্লোগান হয়ে গেছে।

মাশরাফি: ওই সময় তো অত কিছু বুঝতাম না। মনে হয়েছিল, বলে ফেলেছি (হাসি)। তবে এখানে যে উইকেট দেখছি, তাতে এটা ভেজা থাকার কোনো চান্স নেই। এখানে মনে হয়, ৩০০ রানের উইকেটই থাকবে। তবে ওই বার আমি ভালো বোলিং করলেও আমরা সবাই মিলে ভালো খেলেছিলাম বলেই জিততে পেরেছিলাম। পুরো টিম পারফরম্যান্স ছিল। এখানেও আমাদের টিম একসঙ্গে ভালো খেললে সুযোগ থাকবে। ওদের যে দল, তাতে আমরা এক-দুজন ভালো খেললে পারব না।

বাংলাদেশের প্রায় সব বড় জয়েই আপনার ওপেনিং স্পেলের একটা বড় ভূমিকা ছিল। সবাই তাই আপনার দিকে তাকিয়ে থাকে। এটা কি চাপ না প্রেরণা?

মাশরাফি: মানুষ আমার কাছ থেকে আশা করে, এটাকে আমি সব সময় প্রেরণাই মনে করি। আর এখন এসে চাপটাপ নিয়ে একদমই ভাবি না। আমার জীবনে যা গেছে, তাতে এটা আর এমন কী চাপ! আমি যে এখনো ক্রিকেট খেলছি, সেটাই তো খেলার কথা না। এ জন্যই সব সময় ভাবি, আরও বেশি কিছু দিতে পারি কি না।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে কোন জিনিসটা নির্ধারক হবে বলে আপনার ধারণা?

মাশরাফি: আমাদের বোলিং।

তার মানে ব্যাটিংয়ের ওপর পুরো আস্থা আছে আপনার?

মাশরাফি: হ্যাঁ, কারণ ব্যাটসম্যানরা সবাই ফর্মে আছে। এই ম্যাচে কী হবে, সেটি পরের কথা। তবে এই বিশ্বকাপে যদি দেখেন দক্ষিণ আফ্রিকান বোলাররাও সংগ্রাম করছে, ভারতীয় বোলাররা এখনো সত্যিকার চ্যালেঞ্জে পড়েনি। অস্ট্রেলিয়ারও মিচেল স্টার্ক ছাড়া আর কেউ এমন বিরাট কিছু করেনি। বিশ্বের সেরা বোলিং অ্যাটাক বললে আপনি দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের কথা বলবেন। নিউজিল্যান্ড নিজেদের মাঠে খেলেছে বলে ভালো করেছে, তার পরও আমাদের কাছেই ওদের বোলাররা মার খেয়েছে। এখানে ইউএই পর্যন্ত ২৫০ রান করে ফেলছে। এর কারণ হচ্ছে, এখানে ট্রু উইকেট, বল উঁচু-নিচু হয় না। ব্যাটসম্যানদের বিশ্বাস থাকে যে, বল ব্যাটেই লাগবে। এখানে তাই বোলিংটাই বড় চ্যালেঞ্জ।

ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ এত ভালো বলে এই ম্যাচে তো সেটি আরও বেশি, তাই না?

মাশরাফি: বাংলাদেশে অনেকে মনে করছে ভারতের বিপক্ষে পড়েছি বলে আমরা লাকি। আবার আনলাকিও মনে করছে অনেকে। আমি বলব, সমান সমান। এই বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার পরই ভারত সবচেয়ে ভালো খেলছে। ভারতের এই ব্যাটিংয়ের বিপক্ষে বোলিং করা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জটা নিয়ে যদি আমরা জিততে পারি, ম্যাচটা খুব এক্সাইটিং হবে।

আপনি বলেছিলেন কোয়ার্টার ফাইনালে পছন্দের প্রতিপক্ষ বলে কিছু নেই। তার পরও যদি সুযোগ থাকত, তাহলে কোন দলকে বেছে নিতেন?

মাশরাফি: সত্যি বলছি, কোনো পছন্দই নেই। আমি খুব করে চেয়েছিলাম যেন নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে জিতি। জিতলে দক্ষিণ আফ্রিকাকে পেতাম। সবচেয়ে বড় কথা, সবাই ভাবত আমরা অনেক বড় টিম। নকআউট ম্যাচে চাপ আছেই। সব দলই চিন্তা করবে, হেরে গেলেই বিদায়। আমরা যদি নিজেদের আট নম্বর দল ধরি, একমাত্র আমাদেরই এ নিয়ে বাড়তি দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। কারণ, আমাদের হারানোর কিছুই নেই। বাংলাদেশের মানুষ তো আশা করেছেই, কিন্তু এই বিশ্বকাপ নিয়ে এত যে কথা শুনেছেন, কাউকে কি বলতে শুনেছেন বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে পারবে? কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে যাওয়ার পর বলা হচ্ছে, ওরা কি এই চাপ নিতে পারবে? আমাদের ওপর কিসের চাপ, চাপ তো থাকবে অন্য দলের ওপর।

আপনার কি কখনো মনে হয় বাংলাদেশের মানুষ বাস্তবতাটা না বুঝে একটু বেশি আশা করে ফেলে?

মাশরাফি: এমন মনে হতে পারে। তবে এতে আমাদের পারফর্ম করতে সুবিধা হয়। আমরা তো বাংলাদেশের মানুষকে তেমন কিছুই দিতে পারিনি। যদি চিন্তা করে দেখেন, আমরা গত ১৫ বছর একঘেয়ে ক্রিকেট খেলে গেছি। কখনো হয়তো জিতেছি। আমি সব সময়ই বলি, বাংলাদেশের ক্রিকেটে প্রতিটি জয়ই খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কিন্তু বেশির ভাগ সময়ই আমরা খুব বাজে খেলে হেরেছি। তার পরও বাংলাদেশের মানুষ আমাদের দিনের পর দিন সমর্থন করে গেছে। খারাপ খেললে গালি দেবে, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু দিনের পর দিন আমাদের যেভাবে সমর্থন দিয়েছে, এটা অসাধারণ। না হলে এই খেলাটায় যে এত মধু আছে, এত আনন্দ আছে, এর কিছুই আমরা পেতাম না।

ভারতীয় দলে তো অনেক তারকা। তার পরও যদি বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় হুমকি হিসেবে একজনের কথা বলতে বলি...

মাশরাফি: বিরাট কোহলি।

কেন?

মাশরাফি: একটু আগে আপনিই বলছিলেন না, ভারতের যে-ই দাঁড়িয়ে যাবে, সে-ই ম্যাচ বের করে নিয়ে যেতে পারবে। ধাওয়ান আছে, রোহিত শর্মা ওয়ানডেতে ২৫০-এর বেশি রান করেছে। রায়না গত ম্যাচে এক শ মারল। ধোনি তো অহরহ করে আসছে। এমনকি রাহানেও দুর্দান্ত ক্রিকেটার। তার পরও কোহলির কথা আলাদা করে বলব, কারণ ও এমন একজন ব্যাটসম্যান, যে ম্যাচ শেষ করে দিয়ে বেরোবে। ধোনিও তা করে, তবে ও যেখানে খেলে, সেটিই স্বাভাবিক। কিন্তু কোহলি তিন-চারে নেমেও শেষ পর্যন্ত খেলে আসে। এটাও একটা-দুইটা বা পাঁচটা-ছয়টা ম্যাচ না, অসংখ্য ম্যাচে এমন করেছে। ওর উইকেটটা তাই তাড়াতাড়ি নিতে হবে।

শেষ প্রশ্ন, ‘ধরে দিবানি’ ঘোষণা দেবেন এবার?

মাশরাফি: না, ‘ধরে দিবানি’ বলব না। তবে একটা প্রমিজ করতে পারি, আমরা আমাদের রক্তের শেষ বিন্দু দিয়ে চেষ্টা করব। এত দূর যখন এসেছি, সহজে ছাড়ব না। তবে হ্যাঁ, খেলায় কিছু বলা যায় না। আমরা খুব বাজেভাবেও হারতে পারি। আবার খুব ভালোভাবে জিততেও পারি। তবে একটা নিশ্চয়তা দিতে পারি, আমরা সবাই নিজেদের উজাড় করে দেব।
http://m.prothom-alo.com/sports/arti...-করব’
Reply With Quote
  #165  
Old March 17, 2015, 03:58 PM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

http://newagebd.net/103601/rubel-sou....eOWSTA90.dpbs

Rubel, Soumya in Indian attention

Forget about Sakib al Hasan, Tamim Iqbal. The two cricketers that left Indian media more curious before Thursday’s quarter-final are not even Mashrafee bin Murtaza or Mahmudullah. Mushfiqur Rahim, one of the three half-centurions in 2007 who took the winning run and later played a key hand in Asia Cup win, is also a common man now to the Indians. Ever since it appeared India can play Bangladesh in quarter-final all Indian eyes were looking for batsman Soumya Sarkar and bowler Rubel Hossain from Hamilton to Melbourne.

Tigers’ media manager Rabeed Imam said he has received over 20 interview requests from Indian journalists for Soumya and Rubel and had to turn down all for obvious reasons. It is not difficult to understand why Indians have become so curious about Soumya and Rubel. Soumya has injected the kind of freshness in the Bangladesh team that once Tamim demonstrated in 2007 to destroy the Indian bowling. Though Soumya could not play a long innings in this World Cup, his positive intent and stroke making ability caught well attention. Indians became his instant fan after seeing him batting with gracious manner in Hamilton on his way to his maiden one-day international fifty against World Cup’s most incisive attacks. A Kolkata-based reporter thanks to his spending a minute or two with Soumya at Novotel Hotel in Hamilton compared him with Sourav Ganguly and Yuvraj Singh, the two left-handers known for their elegant stroke play. Indians were also seen busy trying to find a link for him with Kolkata to become largely unsuccessful. All they could discover is his visit to Kolkata for BCB Under-17 team when he scored a century on his Eden Garden debut. Soumya’s second Kolkata experienced is limited to his visit for the BCB XI for the 150-year celebration of Eden Garden last year. He did little during the tournament to suggest that the left-hander is a star in the making. But now he appeared as a big prospect to all despite making 146 runs at just 29.20 in five matches. Soumya has drawn so much attention in the World Cup that his visit to see Formula-1 race and intent of taking a photograph with Hollywood star Arnold Schwarzenegger has also become a headline.

Rubel is however not just a target of Indian media unlike Soumya. His spending of three nights in jail and then two months later his two overs that sealed England’s fate made him a headline-grabber already. Rubel outpaced all England bowlers to resounding success obliging English media to shower him with praise. Indians also must be surprised seeing him bowling constantly at 145km speed, something they cannot see too often in their team. Rubel’s love affair with film actress Naznin Akter Happy and the allegation of rape that landed him to jail matched the script of block-buster Bollywood films making him the obvious choice of Indian media. The Tigers knew Rubel could face this kind of attention and carefully shielded him from the army of Indian reporters so far. Even coach Chandika Hathurusighe swept aside a question regarding Rubel on Monday saying that they never discuss personal matter in team. ‘We never spoke about what he was going through,’ said Hathurusinghe. ‘He is very professional and switched on the moment he came into the side. What he has achieved is because of his own hard-work.’ His words however did little to dissuade Indians from hunting the sling action bowler. -
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #166  
Old March 17, 2015, 04:11 PM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

Tigers focusing on result not history
http://newagebd.net/103712/tigers-fo....j9njCscb.dpbs

Azad Majumder . Melbourne
Bangladesh’s historic win over India in 2007 is a thing of past and the Tigers hardly talk about it among themselves, Chandika Hathurusinghe revealed the fact in Melbourne on Monday.
Ahead of Thursday’s World Cup quarter-final against the same opponents, the five-wicket win in Trinidad kept fans engrossed leaving it as one of the most popular topics in social media and fan pages.

Former cricketers also spoke about it a lot to give India an idea about what to expect from the Tigers. Bangladesh’s other wins against India were also being highlighted like anything to warn the defending champions about the danger ahead.

Hathurusignhe said Bangladesh paid little attention to these types of topics as they are aware that apart from raising some expectations, these will help them very little.
‘I don’t think we talk about it at all,’ said the coach about 2007-win. ‘It’s just that you reminded me as I don’t know about it.’

The Sri Lankan coach urged his charges to enjoy the game without thinking too much about anything else as they have nothing to lose but a lot to gain from the game.

‘The team that enjoys will have a better game,’ he said. ‘We should embrace the opportunity presented and enjoy the situation. For us [there is] nothing to prove as we are good enough and that’s why we are here.’

Bangladesh already became a toast of the tournament and Hathurusinghe attributed it to their relatively injury-free ride and the two-week long conditioning camp in Brisbane.
Apart from Anamul Haque’s dislocated shoulder and Mashrafee bin Murtaza’s calf muscle problem Bangladesh appeared fresh in the World Cup unlike many other teams.

Bangladesh did not play any international cricket for two months before the tournament which Hathurusinghe said helped the players staying away from fatigues.
‘I don’t think there is any hidden secret to our success,’ he said. ‘The preparation was thorough.
Not playing a lot of cricket in the lead upto the World Cup was a good thing as we reached Brisbane bit early to acclimatise to the Australian conditions. That was a key thing.
‘Also we are peaking at the right time. All our key players are in form and touchwood there are very less injuries. The players are improving with every game.’

Hathurusinghe said his experience in Australian condition as coach also helped the teams. The 46-year old Sri Lankan trained the Tigers in granite pitches in Dhaka and it was mandatory for all batsmen to spend some time there during every session.

It improved Tigers’ ability to play side shots and hit the length ball, which is believed to be a key recipe to be successful in Australian condition for any side.

‘It has massively helped,’ Hathurusinghe said about his experience as the assistant coach of New South Wales and Big Bash team Sydney Thunders. ‘Knowing the conditions helped me prepare a team and also chalk out specific training for these conditions we would encounter.’

‘We changed a few techniques knowing limitations of sub-continental players,’ said Hathurusinghe, adding that he also gave the captain Mashrafe bin Murtaza full freedom to make his decision.
‘We have a general game plan how we want to go about,’ he said. ‘And then captain is free to take his own decisions on field according to the match situation and how things progress and conditions changes.’
‘We have different game plans for different oppositions.’
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #167  
Old March 17, 2015, 04:28 PM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

Shakib's press conference. Mostly Indian journalist asking questions

‘আমরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত’ We are ready for the challenge

তাঁর তারকা দ্যুতি ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশের সীমানা। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে আইপিএলে দুর্দান্ত খেলেছেন। সাকিব আল হাসানকে নিয়ে তাই ভারতেরও আগ্রহ কম নেই। কাল দুপুরে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) অনুশীলনে নামার আগে আরও একবার সেটির প্রমাণ মিলল। সাকিবের সংবাদ সম্মেলনে অর্ধেকের বেশি সময়জুড়ে প্রশ্ন করলেন ভারতীয় সাংবাদিকেরাই!
স্বাভাবিকভাবেই বেশির ভাগ প্রশ্ন ছিল এমসিজিতে আগামীকালের বাংলাদেশ-ভারত কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে। ম্যাচে বাংলাদেশের সম্ভাবনা, ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস, প্রত্যাশার চাপ—সব প্রসঙ্গই এসেছে। সাকিবের উত্তরে বারবার ধ্বনিত হয়েছে একটা কথাই—বড় দল আর বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বলেই ভারতকে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ যেভাবে খেলছে, সেই সামর্থ্য আরও একবার তুলে ধরতে পারলে ভারত-বধও অসম্ভব নয়। সংবাদ সম্মেলনের প্রায় পুরোটাই তুলে ধরা হলো এখানে—
. কোয়ার্টার ফাইনালের আগে দলের মানসিক অবস্থা কেমন?
সাকিব আল হাসান: দলের অবস্থা ভালো। এই মুহূর্তে সবাই কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচের দিকে তাকিয়ে। আমরা যতটা সম্ভব ভালোভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি, যাতে সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারি।
. বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে আপনার ভূমিকা কী হবে?
সাকিব: ভূমিকা মাঠে যেমন আছে, মাঠের বাইরেও আছে। প্রথমত আমাকে ভালো খেলতে হবে। ব্যাট-বল হাতে অবদান রাখতে হবে। একজন সিনিয়র খেলোয়াড় হিসেবে, সহ-অধিনায়ক হিসেবে আমাকে কখনো কখনো নেতার ভূমিকাও নিতে হবে।
. আর মাঠের বাইরে...
সাকিব: দলকে অনুপ্রাণিত করার সুযোগ সব সময়ই থাকে। অনেক তরুণ খেলোয়াড় আছে, তাদের উৎসাহ দেওয়ার চেষ্টা করব। প্রয়োজনে সিনিয়রদের বুদ্ধি-পরামর্শ দেব।
. এই বিশ্বকাপের দলের সঙ্গে আগের বিশ্বকাপের বাংলাদেশ দলের পার্থক্য কী?
সাকিব: এই বছর আমরা ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। তবে আমি বলছি না যে ২০১১ বিশ্বকাপে ভালোভাবে প্রস্তুতি নিইনি। আমরা প্রথম ম্যাচটা জিতেছি, সেটাই আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে দিয়েছে। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। গত বিশ্বকাপে হয়তো হাতে গোনা দু-একজন পারফরমার ছিল। কিন্তু এবার দলে অনেক পারফরমার।
. এমসিজির মতো বড় মাঠে ভারতের বিপক্ষে খেলা কতটা চ্যালেঞ্জিং?
সাকিব: এখানে আমরা একটা ম্যাচ খেলেছি। কাজেই কী করতে হবে, সে সম্পর্কে মোটামুটি ধারণা হয়েছে। ফিল্ডিং সাজানোর ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। কারা বাউন্ডারি থেকে ভালোভাবে বল থ্রো করতে পারবে, সেটি জানা থাকতে হবে। এ ছাড়া সবারই তো মোটামুটি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা হয়েছে। সবাই জানে কখন কী করতে হবে।
. বিশ্বকাপে আপনাদের একটা দল হয়ে ওঠার পেছনে মাশরাফির অধিনায়কত্বের ভূমিকা কতটুকু?
সাকিব: খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। তিনি দলের সবার সঙ্গে কথা বলেন। বিশেষ করে তরুণ ক্রিকেটারদের অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা করেন। সবার সঙ্গেই তাঁর সম্পর্ক বন্ধুর মতো। খেলোয়াড়েরাও যখন ইচ্ছা তাঁর কাছে যায়, কথা বলে।
. ২০০৭ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ভারতকে হারিয়েছিল। সেই জয় এবার কতটা অনুপ্রাণিত করছে?
সাকিব: ওই স্মৃতিটা আমাদের মাথায় অবশ্যই থাকবে। তবে এটা একটা নতুন ম্যাচ এবং আমরা সবাই তা জানি। ভারত খুব ভালো দল, বিশ্বমানের অনেক খেলোয়াড় আছে তাদের। ম্যাচটা তাই সহজ হওয়ার কথা নয়। তবে আমরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত এবং সেভাবেই তৈরি করছি নিজেদের। একটাই তো ম্যাচ...সেরা খেলাটা খেলতে পারলে সবই সম্ভব।
. ২০১১ বিশ্বকাপের আগে বীরেন্দর শেবাগ বলেছিলেন, বাংলাদেশকে সহজেই হারানো সম্ভব। ম্যাচ জেতার পর তিনি বলেছিলেন, আমরা যা বলেছি, তা করে দেখিয়েছি। আপনার কি মনে হয় এবার আর ভারতের উচিত হবে না আপনাদের হালকাভাবে নেওয়া?
সাকিব: বিশ্বকাপে কোনো দলই কোনো দলকে হালকাভাবে নেয় না। আর কোয়ার্টার ফাইনালে তো একটা ম্যাচই, এখানে কাউকে হালকাভাবে নেওয়ার সুযোগই নেই। আমরা এই বিশ্বকাপে ভালো খেলছি। আমাদের আত্মবিশ্বাসও অনেক উঁচুতে।
. আপনি অভিজ্ঞ খেলোয়াড়, তার পরও কি বলবেন এটা আপনার ক্যারিয়ারের এবং আপনার দেশের ক্রিকেটের জন্যও সবচেয়ে বড় ম্যাচ?
সাকিব: তা বলা যায়...কারণ বাংলাদেশ প্রথম বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলছে। তবে একই সঙ্গে আমাদের এটাও বুঝতে হবে যে, এটা আর একটা সাধারণ ম্যাচের মতোই।
. এমসিজিতে আপনাদের ম্যাচে ৮০-৯০ হাজার দর্শক হতে পারে। এত দর্শকের সামনে আগে খেলেছেন?
সাকিব: কলকাতার হয়ে আইপিএলে খেলায় আমার কিছুটা অভিজ্ঞতা আছে। ৭৩ থেকে ৮০ হাজার দর্শক হয় ওখানে। প্রতি ম্যাচেই গ্যালারি ভরা থাকে।
. আইসিসির সহযোগী দেশগুলোকে বিশ্বকাপে রাখা উচিত কি না, এ নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। আপনার মতামত কী?
সাকিব: এটা আসলে আইসিসির ব্যাপার। তারা যা করবে নিশ্চয়ই ক্রিকেটের ভালোর জন্যই করবে। তার পরও আমার মতে ক্রিকেটের বিশ্বায়ন চাইলে আরও বেশি দলকে খেলতে দেওয়া উচিত।
. আমরা শুনেছি একজন ক্রীড়া মনোবিদ আপনাদের দলের সঙ্গে কাজ করছেন। দলে তিনি কী ভূমিকা রাখছেন?
সাকিব: আমি ঠিক জানি না কীভাবে এটাকে বর্ণনা করব। তাঁরা কীভাবে কাজ করেন বা কী বলেন, সেটা গুছিয়ে বলা বেশ কঠিন। কিন্তু আপনি যদি তাঁর মতামতটা গ্রহণ করেন, তা অনেক কাজে দেয়। আপনার যখন এ রকম কারও সঙ্গে দেখা হবে, তখনই আসলে বুঝতে পারবেন ব্যাপারটা কী।
. ২০০৭ বিশ্বকাপের পর ২০১২ এশিয়া কাপেও বাংলাদেশ ভারতকে হারিয়েছে। ওই দুই ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ের রহস্য কী ছিল?
সাকিব: আমরা ভয়-ডরহীন ক্রিকেট খেলেছিলাম। এবারও চাই ওই ধরনের ক্রিকেট খেলতে। আমার মনে হয় এই বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত আমরা তা খেলছিও। ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যে রকম খেলেছি, ওই খেলাটা খেলতে পারলে কোয়ার্টার ফাইনালে অনেক ভালো ম্যাচ হবে।
. ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা এই ম্যাচে বাংলাদেশের জেতার সম্ভাবনা কমই দেখছেন। আপনি কতটুকু সম্ভাবনা দেখছেন?
সাকিব: সবকিছু নির্ভর করে ম্যাচের দিন আমরা কেমন খেললাম তার ওপর। যা-ই করি না কেন শুরুটা ভালো হতে হবে। আর সেই ভালো শুরুটা ধরে রাখতে পারলে যেকোনো কিছু সম্ভব। কাগজ-কলমে অবশ্যই ভারত বাংলাদেশের চেয়ে ভালো দল। তবে দিনটা যদি আমাদের জন্য ভালো হয় আর তাদের জন্য খারাপ হয়, যেকোনো কিছুই হতে পারে।
. আইপিএল খেলে আপনি এমন কী শিখেছেন, যেটা এখানে কাজে লাগতে পারে? ধরুন চাপের মধ্যে মাথা ঠান্ডা রেখে রান তাড়া করা বা সে রকম কিছু...
সাকিব: কিছু ইতিবাচক দিক তো আছেই। সেখানে অনেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারের সঙ্গে খেলেছি এবং তাদের জেনেছি। সে অভিজ্ঞতা দলের সঙ্গে ভাগাভাগি করলে তারাও এটা থেকে উপকৃত হবে।
. ধোনি বা কোহলিদের বল করার ক্ষেত্রে কিছু কৌশল অবলম্বন করেন বোলাররা। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে আপনার মাথায়ও কি সে রকম কিছু থাকবে?
সাকিব: সবাই তো একটা পরিকল্পনা করেই মাঠে নামে। আইপিএল খেলে আমার যে অভিজ্ঞতা হয়েছে, সেটা অবশ্যই দলকে জানাব। তা যদি আমাদের খেলোয়াড়দের সাহায্য করে তাহলে তো খুবই ভালো।
. বাংলাদেশ দলের ১০০ ও ১৫০তম ওয়ানডেতে আপনারা ভারতের বিপক্ষে জিতেছেন। এবার খেলবেন ৩০০তম ওয়ানডে। এই ম্যাচটাকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ কোনো পরিকল্পনা?
সাকিব: সত্যি কথা বলতে এটা (বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল) আমাদের জন্য অনেক বড় উপলক্ষ। আমার মনে হয় না এর জন্য অন্য কোনো প্রেরণার দরকার আছে। সবাই জানে এটার গুরুত্ব এবং সবাই সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছে।
. এবারের বিশ্বকাপে আপনি আপনার পারফরম্যান্সকে কীভাবে মূল্যায়ন করবেন?
সাকিব: আমি বলব মোটামুটি। হয়তো আরেকটু ভালো করতে পারতাম, বিশেষ করে ব্যাটিংয়ে। বোলিং নিয়ে খুশি। তবে উন্নতির তো শেষ নেই। আর দলের জন্য অবদান রাখারও শেষ নেই।
. বিশ্বকাপে ভারতকে সামনে পেলে আপনার প্রথমে কি মনে পড়ে—২০০৭ না ২০১১? ২০০৭ এ আপনার অভিষেক হয়েছিল। ২০১১ বিশ্বকাপে আপনি অধিনায়ক ছিলেন...
সাকিব: ২০০৭। প্রথমবার একটা বিশ্বকাপ খেললাম। এর আগে খুব বেশি বড় দলের বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা হয়নি।
. মেলবোর্নে বেশির ভাগ দর্শক হয়তো আপনাদের সমর্থন করবে না। উল্টো প্রতিপক্ষকে সমর্থন করবে। এটা কতটা চ্যালেঞ্জিং?
সাকিব: (হাসি) আসলে এই অভিজ্ঞতা এখনো হয়নি। অভিজ্ঞতা না হলে তো বলা মুশকিল কতটা চ্যালেঞ্জিং।
. ভারতের ব্যাটিং গভীরতা অনেক বেশি। যদি কোনো একজন ব্যাটসম্যানের কথা বলা হয়, কোন উইকেটটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ?
সাকিব: ওদের প্রথম ছয় ব্যাটসম্যানই বিশ্বমানের। ছয়টা উইকেটই অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যে কেউ ম্যাচ বদলে দিতে পারে এবং আমরা তা ভালো করেই জানি। আমাদের চেষ্টা থাকবে ওরা যাতে বড় জুটি গড়তে না পারে। যারা বেশি ভালো খেলোয়াড়, তাদের উইকেট যদি তাড়াতাড়ি নিতে পারি, তাহলে তো আরও ভালো।
. ২০০৭ ও ২০১১তে বাংলাদেশ গ্রুপ পর্বে ভারতের বিপক্ষে খেলেছে। এবার খেলবে নকআউট পর্বে। চাপ কোন দলের ওপর বেশি থাকবে?
সাকিব: যেহেতু নকআউট পর্ব, চাপ দুই দলের ওপরই আছে। দুই দলই তো চায় জিততে।
. যদি বাংলাদেশ আগে ব্যাট করে, কত রান করলে জেতা সম্ভব বলে মনে করেন?
সাকিব: বলা কঠিন। খেলা শুরু হওয়ার পরই আসলে পিচের ধরন বোঝা যায়। তবে এখানে যে কয়টা ম্যাচ হয়েছে, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে তিন শর কাছাকাছি বা তিন শর বেশি রান ছিল। আমরা যে ম্যাচটা খেলেছি তাতেও খুব ভালো ব্যাটিং উইকেট ছিল। আমার মনে হয় ২৮০ থেকে ৩২০-এর মতো রান ভালো লক্ষ্য হতে পারে।
. আপনারা যত ভালো খেলছেন, দেশের মানুষের মধ্যে ততই প্রত্যাশা বাড়ছে। কখনো কখনো সেটা অবাস্তব পর্যায়েও চলে যাচ্ছে। এই উন্মাদনার সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নিচ্ছেন?
সাকিব: আমরা যখন কোনো সিরিজ বা এ ধরনের বড় টুর্নামেন্টে খেলি, তখন বাইরের জিনিসগুলোর দিকে মনোযোগ কম দেওয়ার চেষ্টা করি। দলের বাইরে কী হচ্ছে সেটা আমরা খুব একটা জানছি না। আর আমার মনে হয় না দেশের মানুষের প্রত্যাশাকে খেলোয়াড়েরা নেতিবাচকভাবে নেবে। এটা আমাদের অনুপ্রাণিতই করবে। আমরা ভালো খেলছি বলেই প্রত্যাশা বাড়ছে।
. প্রত্যাশার চাপটা কেমন?
সাকিব: উপমহাদেশের মানুষের প্রত্যাশা সব সময়ই বেশি থাকে। তবে চাপ না নিয়ে আমাদের খেলায় দৃষ্টি দিতে হবে। কীভাবে ভালো খেলা যায়, সেটাই মূল কথা। সেটা করতে পারলে ফল এমনিতেই আমাদের পক্ষে আসবে। জিতি বা হারি, আমরা আমাদের সেরা খেলাটা খেলতে চাই।
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #168  
Old March 17, 2015, 04:43 PM
Tigers_eye's Avatar
Tigers_eye Tigers_eye is offline
Cricket Savant
 
Join Date: June 30, 2005
Location: Little Rock
Favorite Player: Viv Richards, Steve Waugh
Posts: 30,164

^^^ Very well organized and diplomatic answers.
__________________
The Weak can never forgive. Forgiveness is an attribute of the Strong." - Gandhi.
Reply With Quote
  #169  
Old March 17, 2015, 05:16 PM
BengaliPagol's Avatar
BengaliPagol BengaliPagol is offline
Cricket Legend
 
Join Date: February 4, 2012
Location: Meherpur, Kushtia
Favorite Player: Imrul "The Don" Kayes
Posts: 7,206

When you heard Shakib's responses to his role in the team compared with Mashrafe's role you can instantly see that Mashrafe is much more suited to the captaincy role - being close with all the team mates, giving advice to youngsters, leading from the front etc.

btw Rubel's story from being in jail to playing quarter finals in the world cup is definitely bollywood material.
__________________
Check out our podcast channel and also our episode with Dr Mohamed Ghilan!
facebook.com/boysinthecave
boysinthecave.libsyn.com
Reply With Quote
  #170  
Old March 17, 2015, 07:54 PM
reverse_swing's Avatar
reverse_swing reverse_swing is offline
Chief Moderator
 
Join Date: August 22, 2003
Favorite Player: Shakib Al Hasan
Posts: 5,916

Quote:

মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড৷ ১৯ মার্চ, বৃহস্পতিবার, ভারতীয় সময় সকাল ৯টা৷
সময়টা ভাল করে মনে রাখুন৷ কেউ টিভি চ্যানেলের পর্দা থেকে চোখ সরাবেন না৷ কিংবা ভুলে যাবেন না রেডিওর ধারাবিবরণী শুনতে৷ আইসিসি বিশ্বকাপে নকআউট কোয়ার্টার ফাইনাল৷ মুখোমুখি দুই এশীয় রাষ্ট্র–ভারত ও বাংলাদেশ৷
আর এসময়ই ঘটবে এক চমত্কার দৃশ্য৷ 
১ লাখ ২৪ জন দর্শকের আসন অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া প্রদেশে এমসিজি বা মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডের তিনতলা নয়নাভিরাম স্টেডিয়ামে৷ একই উপমহাদেশের খেলাপাগল সমর্থকদের ভিড়ে এই বিশাল মাঠ যে উপচে পড়বে, তা নিয়ে সন্দেহ নেই৷ গ্যালারি মুড়ে যাবে জাতীয় পতাকায়৷ আর খেলা শুরুর আগে প্রচলিত নিয়মে বেজে উঠবে দু'দেশের জাতীয় সঙ্গীতের সুর৷
ভারত .. ‘জনগণমন ...'৷
বাংলাদেশ .. ‘আমার সোনার বাংলা ...'৷
খেলার ফল শেষে যাই হোক, শুরুর এই জাতীয় সঙ্গীতই ভরিয়ে দেবে মন৷ কারণ, দু'দেশেরই জাতীয় সঙ্গীতের রচয়িতা একই জন৷ এক বাঙালি৷ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর৷ তবে মাঠে বিশ্বকবির গানে কারা বেশি উদ্বু হবেন, তেতে যাবেন, জ্বলে উঠবেন, তা জানা যাবে ১০০ ওভার পর৷
আসলে, মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সেদিন বিরাজমান থাকছেন বারোজন বাঙালি! ১১ বাংলাদেশি ক্রিকেটার ও স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ৷ এ এক অসাধারণ কাণ্ড৷ বস্ত্তত, বিশ্বকবির মন্ত্রে উদ্বু হয়ে ২২ গজের পিচে যু‌দ্ধে নামবেন দু'দেশের ২২ জন জাতীয় ক্রিকেটার৷ ওদের হূদয়ে থাকবেন রবিঠাকুর৷
বলা ভাল, ওই দু'টি জাতীয় সঙ্গীতেরই রচনাকাল পরাধীন আমলে৷ ভারতের জাতীয় সঙ্গীতের বয়স ৬৫ বছর৷ রবীন্দ্রনাথ এটি রচনা করেছিলেন ১৯১১ সালে, নোবেল প্রাইজ পাওয়ার দু'বছর আগে৷ ১৯৫০ সালের ২৪ জানুয়ারি তা জাতীয় সঙ্গীত হিসাবে গ্রহণ করে দেশের গণপরিষদ৷ তবে, ‘জনগণমন'-র দ্বিতীয় লাইনে ছিল .. ‘পঞ্জাব সিন্ধ গুজরাট মারাঠা ...'৷ দেশভাগের ফলে সিন্ধ প্রদেশ পাকিস্তানের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় গণপরিষদ ‘সিন্ধ' শব্দটি পাল্টে জাতীয় সঙ্গীতে তা করে ‘সিন্ধু'৷ এই জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া হয় সাতলাইনে, সময় লাগে ৫২ সেকেন্ড৷
Read More: Sangbadpratidin >>
__________________

Reply With Quote
  #172  
Old March 17, 2015, 10:06 PM
WarWolf WarWolf is offline
Cricket Guru
 
Join Date: March 3, 2007
Favorite Player: Love them all....
Posts: 13,705

Khela valoi jone uthese.
Reply With Quote
  #173  
Old March 18, 2015, 01:39 AM
Shaan's Avatar
Shaan Shaan is offline
Cricket Legend
 
Join Date: March 11, 2004
Location: somewhere in the GaLaXy
Favorite Player: TIGERS !!
Posts: 4,646

Hehehe..They way media and supporters started the war i guess very soon we need to arrange oneday ashes between bd and india.. )
Reply With Quote
Reply


Currently Active Users Viewing This Thread: 1 (0 members and 1 guests)
 
Thread Tools
Display Modes

Posting Rules
You may not post new threads
You may not post replies
You may not post attachments
You may not edit your posts

BB code is On
Smilies are On
[IMG] code is On
HTML code is On



All times are GMT -5. The time now is 11:22 PM.



Powered by vBulletin® Version 3.8.7
Copyright ©2000 - 2017, vBulletin Solutions, Inc.
BanglaCricket.com
 

About Us | Contact Us | Privacy Policy | Partner Sites | Useful Links | Banners |

© BanglaCricket